‘বিরোধীরা ক্ষমতায় থাকাকালীন কেও ভাবেননি কৃষকদের কথা, ভেবেছে শুধু বিজেপি সরকার’- মুখ খুললেন মোদী!


নিজস্ব সংবাদদাতা: রবিবার একটি ভার্চুয়াল প্রোগ্রামের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত একটি অনুষ্ঠানে উত্তরপ্রদেশের পূর্ব অংশের ৩ জেলার ৩ টি গ্রামের প্রায় ৪০,০০০ গ্রামবাসীকে তাদের সম্পত্তি কার্ড বিতরণ করা হয়েছিল। মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এবং কেন্দ্রীয় পঞ্চায়েতি রাজমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমার অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

ভারত সরকারের পঞ্চায়েতি রাজ বিভাগের একটি প্রকল্প হল সম্পত্তি কার্ড। এই প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়েছিল ২০২০ সালের ২৪ শে এপ্রিল। প্রধানমন্ত্রী এই প্রকল্পের উদ্বোধন করেছিলেন, এবার ইউপি-র মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এটিকে মিশন মোডে নিয়ে এসেছেন।

বি-রো-ধী-দে-র সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “যারা আমাদের কৃষকদের স্বনির্ভর করতে চান না তারা কৃষিক্ষেত্রে সংস্কারে সমস্যা তৈরি করছেন। ক্ষুদ্র কৃষকদের জন্য, পশুপালক, জেলেদের জন্য কিষাণ ক্রেডিট কার্ড প্রবর্তন করার পর দালাল এবং মধ্যস্বত্বভোগীদের সমস্যা হচ্ছে, কারণ তাদের অবৈধ আয় বন্ধ হয়ে গেছে।”

তিনি ইউরিয়ার নিম লেপ, কৃষকদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে সরাসরি বেনিফিট ট্রান্সফার ইত্যাদির মতো কৃষিবান্ধব উদ্যোগগু-লির তালিকাও দিয়েছিলেন। তিনি বলেন,”দেশের উন্নয়ন তাদের কারণে থামছে না এবং গ্রাম ও দরিদ্রদের স্বাবলম্বী করে তুলবে।” সেই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেছিলেন, “সারা বিশ্বে বড় বিশেষজ্ঞরা জোর দিয়ে চলেছেন যে, দেশের উন্নয়নে জমি ও বাড়ির মালিকানার বড় ভূমিকা আছে। যখন সম্পত্তির রেকর্ড থাকে, যখন সম্পত্তির অধিকার থাকে তাহলে নাগরিকদের মধ্যে আস্থা বৃদ্ধি পায়। ”


Leave a Reply

Your email address will not be published.