‘তৃণমূলের দুই সম্মানীয় নেতা ফোন করেছিলেন আমাকে, রাহুলের মন্তব্যে রাজ্য-রাজনীতি তোলপাড়!

‘তৃণমূলের দুই সম্মানীয় নেতা ফোন করেছিলেন আমাকে, রাহুলের মন্তব্যে রাজ্য-রাজনীতি তোলপাড়!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- ভোট যত এগিয়ে আসছে ততই যেন পাল্টাচ্ছে রাজনীতি চিত্রটা । মুহূর্তের মধ্যে ঘটে যাচ্ছে পালাবদল । কোথাও আবার নিজের দলের বিশ্বস্ত লোক পাল্টে নিচ্ছে দল। কোথাও আবার সংগঠন আরও মজবুত হচ্ছে। এরকম ভাবে টানাপোড়েন চলছে আপাতত রাজনীতি রাজমহল ভোটের আগে ।তার সাথে সাথে বেড়ে চলেছে জ-ল্প-না ও কৌতুহল ।

সামনে বিধানসভা ভোট কে মাথায় রেখে রাজনৈতিক দলগু-লির প্রস্তুতি ইতিমধ্যে চোখে পড়ার মতো ।কোমর বেঁধে নেমে পড়েছেন প্রত্যেকে মাঠে ।বিনা যু-দ্ধে এক ইঞ্চিও জমি ছাড়তে নারাজ কেউই। তাই তার প্রস্তুতি চলছে একদম অন্য রকম ভাবে । বেশ কিছুদিন আগে রাজ্যের বিজেপি কমিটি গঠনের যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল সে সিদ্ধান্ত থেকে বাদ পড়েছেন রাহুল সিনহা সে কথা আমাদের প্রত্যেকেরই জানা। তবে আরও একবার রাহুল সিনহা রাজনীতিতে হওয়ার জল্প-নাকে উস্কে দিলেন।

গত কুড়ি দিন আগে বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক থেকে পদচ্যুত হয় রাহুল সিনহা। সেদিন রাতে তিনি একরাশ ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিজেপির বি-রু-দ্ধে। সেই প্রসঙ্গে টুইটারে তিনি একটি ভিডিও শেয়ার করেন যেখানে তিনি বলেন যে দীর্ঘ চল্লিশ বছর ধরে তিনি বিজেপি সাথে যুক্ত আছেন। দল তাকে ভালো উপহার দিয়েছে ।এর জবাব তিনি দশ বারো দিনের মধ্যে দেবেন। কিন্তু হিসেব করলে দেখা যাবে দশ বারো দিনের বেশি সময় হয়ে গেছে । কি ভাবছেন এখন তাহলে রাহুল সিনহা? ।

এবিষয়ে বিজেপি নেতা বলেন, “অবস্থান যা ছিল তাই রয়েছে। এত দিন তো কাজ করলাম, এখন একটু বিশ্রাম নিচ্ছি। কুড়ি দিন হয়েছে, আরও কয়েক দিন হবে।” এর পাশাপাশি তিনি যে খবর তুলে ধরলেন তা ঘিরে রীতিমতো জল্পনা আরো বেড়ে গেছে । রাহুলবাবু আরও বলেন, “ফোন করেছিলেন তৃণমূলের দুই সম্মাননীয় নেতা। পৃথক পৃথক ভাবে দু’জন ফোন করেছিলেন। তাঁরা জানতে চাইছিলেন, আমি কী চিন্তা করছি। আগামী দিনে কী পরিকল্পনা রয়েছে,ইত্যাদি। এটুকুই আর কী! সৌজন্য ফোন যেমন হয়, সেটাই। এমনিতে প্রচুর মানুষ এবং রাজনৈতিক দলের নেতারা ফোন করেছেন। এই বিষয়টাতে যাঁর যে রকম প্রতিক্রিয়া, সেটাই জানিয়েছেন।”

তাহলে কী কোথাও রাহুল সিনার বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিতে চলেছে ঠিক যেমনটা তার সাথে ঘটল । তৃণমূল থেকে আসা নেতাদের জন্য তাকে পদ হারাতে হলো । তাহলে কি এবার সেই বিজেপির সঙ্গে যুক্ত রাহুল সিনহা হয়ে উঠতে চলেছে তৃণমূলের এক অন্যতম মুখ? প্রশ্ন অনেকের । তবে এখনো পর্যন্ত তিনি কোন দলে যাবেন অর্থাৎ তৃণমূল না বিজেপি তার স্পষ্ট জবাব তিনি দেননি। অব্যাহত রেখেছেন কৌতুহলকে ।

,

Leave a Reply

Your email address will not be published.