মুসুর ডাল ও ডিম দিয়ে সহজ ঘরোয়া উপায়ে বানিয়ে দেখুন এই ইউনিক রেসিপি, খেতে হবে লা জবাব!

নিজস্ব প্রতিবেদন: বাঙালি প্রথম থেকেই ভোজন রসিক জাতি হিসেবে পরিচিত। কম-বেশি প্রায় প্রতিনিয়তই কিন্তু যে কোন বাঙালি বাড়িতে দেখবেন নিত্য নতুন খাবার রান্না করা হয়ে থাকে। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করে নেব মসুর ডাল ও ডিম দিয়ে তৈরি একটি সম্পূর্ণ নতুন রেসিপি যা খুব সহজেই কিন্তু একেবারে বাড়িতে আপনারা তৈরি করে নিতে পারবেন। চলুন তাহলে আর সময় নষ্ট না করে এই মুচমুচে রেসিপিটি তৈরির পদ্ধতি জেনে নেওয়া যাক।

মসুর ডাল ও ডিম দিয়ে তৈরি সম্পূর্ণ নতুন স্বাদের একটি মুচমুচে রেসিপি:

১) রেসিপিটি তৈরি করার জন্য আপনাদের তিনটি সেদ্ধ ডিম নিয়ে নিতে হবে। এবার এই ডিমগুলোকে ছুরি দিয়ে মাঝবরাবর কেটে নিন। মোটামুটি চার ভাগে ভাগ করে ডিমগুলোকে আলাদা একটি পাত্রে তুলে রাখুন। অন্য একটি পাত্রে মোটামুটি এক কাপ মসুর ডাল নিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন। এবার গ্যাসে একটি কড়াই বসিয়ে তাতে ২ চামচ সরষের তেল দিয়ে দিতে হবে। তারপর এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে হাফ চামচ গোটা জিরে, ছোট সাইজের একটা পেঁয়াজ কুচি, বড় চামচের এক চামচ গ্রেট করা আদা ও রসুন।

সমস্ত উপকরণ গুলিকে হালকা করে ভেজে নেওয়ার পর এর মধ্যে আপনাদের মসুর ডাল দিয়ে দিতে হবে। ডালটাকে ভালো করে উপকরণগুলোর সাথে মিশিয়ে নিন। ডাল সেদ্ধ করার জন্য কড়াইতে পরিমাণমতো জল দিয়ে দিন। জল কিন্তু খুব বেশি দেবেন না, কারণ ডাল আপনাদের একদম শুকনো করে সেদ্ধ করতে হবে। কিছুক্ষণ ঢাকনা চাপা দিয়ে ডালটাকে সেদ্ধ করে নিন। কিছুক্ষণ পর ঢাকনা খুলে এক মিনিট হাই ফ্লেমে রেখে আপনাদের ডালটিকে আরেকটু সেদ্ধ করে নিতে হবে যাতে অবশিষ্ট জলটাও চলে যায়।

২) ডাল সেদ্ধ হয়ে যাওয়ার পর এটা কে অন্য একটি পাত্রে তুলে নিয়ে আপনাদের ঠান্ডা করে নিতে হবে। মসুর ডাল পুরোপুরি ঠান্ডা হয়ে যাওয়ার পর এর মধ্যে আপনাদের দিয়ে দিতে হবে একটা ছোট সাইজের পেঁয়াজ কুচি, তিনটে কাঁচা লঙ্কা কুচি এবং সামান্য ধনেপাতা কুচি। এবার আপনাদের এর মধ্যে কিছু মসলা যোগ করে দিতে হবে।

সামান্য হলুদের গুঁড়ো, লাল লঙ্কার গুঁড়ো, ভাজা জিরের গুঁড়ো এবং স্বাদমতো লবণ যোগ করে দিন। সবশেষে এর মধ্যে যোগ করতে হবে শাহী গরম মসলা। সমস্ত উপকরণ গুলিকে এবার ডালের সঙ্গে খুব ভালো করে মেখে নিন। কিছুটা পরিমাণে (তিন থেকে চার চামচ) ব্রেডক্রাম্ব্স নিয়ে ডালের মধ্যে দিয়ে দিতে হবে। মনে রাখবেন এটি ব্যবহার করলে কিন্তু রেসিপিটি খুব ভালো মুচমুচে হবে।

৩) পরবর্তী ধাপের শুরুতেই ওই ডালের মিশ্রণটির মধ্যে আপনাদের একটা ডিম ফেটিয়ে দিয়ে দিতে হবে। তবে ডিম কিন্তু সব সময় শেষের দিকেই দেবেন কারণ আগে যদি আপনারা ডিম যোগ করে দেন তাহলে কিন্তু মিশ্রণটি পাতলা হয়ে যেতে পারে। অন্যান্য উপকরণ গুলির মতন ডিমটা কেউ ডালের সঙ্গে খুব ভালোভাবে মিশিয়ে ফেলুন। এবার হাত পরিষ্কার করে দুই হাতে ভালো করে একটু সর্ষের তেল মেখে নিন। এবার এগুলোকে অনেকটা রুটির লেচির মতন গোল করে নিয়ে হাত দিয়ে সামান্য চেপটে দিন।

এবার প্রথমে যে ডিমগুলোকে কেটে রেখেছিলেন সেগুলো একটা করে নিয়ে এই মিশ্রণের মাঝের অংশ দিয়ে ভালো করে মুখ বন্ধ করে দিতে হবে। প্যানে পর্যাপ্ত পরিমাণ তেল দিয়ে সেটাকে গরম করে নেওয়ার পর এই মিশ্রণ গুলি কে আপনারা ভালো করে ভেজে নিন। ব্যাস তৈরি হয়ে গেল ডিমের কাবাব। স্যালাড দিয়ে খুব সহজেই সন্ধ্যার স্ন্যাকসে বা বাড়িতে অতিথি আসলে আপনারা এটা পরিবেশন করতে পারেন।

Back to top button