রান্না ঘরের কাজ সহজ করতে গৃহিণীদের জন্য রইলো দারুন ৮টি কিচেন টিপস!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমাদের দৈনন্দিন জীবনে এমন অনেক জিনিস রয়েছে যেগুলি সম্পর্কে কিন্তু একটু ভালোভাবে লক্ষ্য রাখলেই আমরা সাংসারিক কাজ অনেক সহজ করে তুলতে পারি। বিশেষ করে গৃহিণীদের জন্যই আমাদের আজকের এই প্রতিবেদন। সংসারের বিভিন্ন কাজ করতে গিয়ে রীতিমতো হাঁপিয়ে পড়েন গৃহিণীরা। কিন্তু তারপরেও হয়তো অনেক সময় কাজ মনমতো হয়ে ওঠে না। আজকের এই প্রতিবেদনে আমরা গৃহিণীদের জন্য বিশেষ কিছু টিপস্ সম্পর্কে আলোচনা করতে চলেছি যা হয়তো বর্তমানে এবং ভবিষ্যতে অনেকটাই কাজে লাগতে পারে। সুতরাং যদি আপনিও সাংসারিক বিভিন্ন কাজ নিয়ে মাঝেসাঝে সমস্যায় পড়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই আমাদের এই প্রতিবেদনটি পড়ে ফেলুন।

  • গৃহিণীদের জন্য বিশেষ কিছু সাংসারিক টিপস—

১) অনেক সময় আমাদের বাড়িতে মিষ্টির প্যাকেট থেকে শুরু করে এমন অনেক জিনিস আসে যেগুলিতে রবার দেওয়া থাকে। অনেকেই কিন্তু এই রবার ফেলে দিয়ে থাকেন। কিন্তু তা না করে এই রবার গুলিকে খুলে একটি কৌটোর মধ্যে সংগ্রহ করে রাখুন। প্রয়োজনে সামান্য পাউডার ছড়িয়ে রাখতে পারেন যাতে এটি নষ্ট না হয়ে যায়। এভাবে রবার যত্ন করে রেখে দিলে কিন্তু অনেক সময় প্রয়োজনে ব্যবহার করতে পারবেন।

২) আপনার বিভিন্ন সবজির ক্ষেত্রেই কিন্তু গ্রেটার ব্যবহার করা হয়ে থাকে কমবেশি। দীর্ঘ সময় ধরে গ্রেটার ব্যবহার করতে করতে এতে এক ধরনের কালচে দাগ পড়ে যায়। এই দাগ থেকে মুক্তির সহজ উপায় হিসেবে আপনারা বাড়িতে থাকা টমেটো সস গ্রেটারের উপরে লাগিয়ে নিতে পারেন। এবারে অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল পেপার এর সাহায্যে আপনারা ভালো করে এটিকে ঘষে নিলেই দেখবেন সমস্ত ময়লা চলে গিয়েছে। যদি ফয়েল পেপার না থাকে সেক্ষেত্রে আপনারা বাড়িতে থাকা পুরনো টুথব্রাশ ও ব্যবহার করতে পারেন।

৩) রান্নার বিভিন্ন কাজে আমরা এলাচ ব্যবহার করে থাকি। এলাচ ব্যবহার করার পর আমরা এর খোসা সাধারণত ফেলে দিয়ে থাকি। কিন্তু এই খোসা ফেলে না দিয়ে যদি আপনারা চা পাতা রাখার বয়ামে দিয়ে দেন সেক্ষেত্রে কিন্তু খুব সহজেই চায়ের মধ্যে এলাচের ফ্লেভার চলে আসবে।

৪) এরপর আমরা যে সমস্যাটির কথা বলব তা বর্ষাকালে প্রত্যেক বাড়িতেই দেখা যায়। নুন বর্ষাকালে কিন্তু খুব সহজেই গলে যায় বা একটা ভেজা ভেজা ভাব চলে আসে। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আপনারা নুনের পাত্রের মধ্যে কয়েকটি লবঙ্গ দিয়ে রাখতে পারেন। এভাবে লবঙ্গ দিয়ে রাখলে কখনোই কিন্তু নুন ভিজবে না বা গলে যাবে না।

৫) আমাদের পঞ্চম টিপস কিন্তু ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। এটি একটি চাবি তলা সংক্রান্ত টিপস। বর্ষাকালে প্রায় সময় দেখা যায় এই চাবির লক কিন্তু খুব ভালোভাবে কাজ করে না। সাধারণত এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আমরা নারকেল তেল বা সরষের তেল ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু সেটি না করে বাড়িতে থাকা যে কোনো সাবান দিয়ে চাবির মুখের যেই অংশটি তালার মধ্যে প্রবেশ করানো হয় সেটিকে একটু ঘষে নিলেই কিন্তু সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। অবশ্যই প্রয়োজন অনুযায়ী আপনারা এটি বাড়িতে ট্রাই করে দেখে নিতে ভুলবেন না।

৬) প্রেসার কুকারের ডাল বা চাল রান্না করার সময় কিন্তু উপছে পড়ে যাওয়ার মতন একটা ব্যাপার সৃষ্টি হয়। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আপনারা ঢাকনার উপরে যে রবার ব্যান্ডটি থাকে সেটার মধ্যে সামান্য তেল লাগিয়ে নিতে পারেন এবং চাল বা ডাল রান্না করার সময় অবশ্যই এই কাজটি করবেন। তাহলে কিন্তু আর আপনাদের এই সমস্যা দেখা দেবে না।

৭) রসুনের খোসা ছাড়ানোর সময় অনেক সমস্যা দেখা দেয়। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আপনারা কিছুক্ষণ জলে রসুন গুলিকে ভিজিয়ে রাখতে পারেন। এভাবে ভিজিয়ে রাখার পর সামান্য হাত দিয়ে ঘষে নিলেই দেখবেন রসুনের গা থেকে সমস্ত খোসা সহজেই উঠে চলে আসছে।

৮) আজকের এই প্রতিবেদনে সবশেষে যে টিপসটি আলোচনা করব তা কিন্তু খুবই গুরুত্বপূর্ণ। অনেক সময় কি হয় আমাদের স্মার্ট ফোন জলে ভিজে যায় বা জলে পড়ে গিয়ে থাকে। যেহেতু এগুলিকে রোদে দিয়ে শুকানো যায় না তাই আপনারা একটি কাজ করতে পারেন।

গ্যাসে ননস্টিক প্যান বসিয়ে তাতে একটু বেশি পরিমাণে চাল মিনিট দু এক সময় পর্যন্ত ভালো করে গরম করে নিতে পারেন। তবে এর থেকে বেশি কিন্তু গরম করবেন না। এবারে গ্যাস বন্ধ করে নিয়ে আপনারা আপনাদের ভিজে যাওয়া মোবাইলটিকে এর মধ্যে ভালো করে এপিঠ ওপিঠ করে রেখে শুকিয়ে ফেলুন।

এতে খুব সহজেই ভেতরের জল টেনে যাবে এবং আপনাদের ফোনের কোন ক্ষতি হবে না।

Back to top button