“শাড়ি দিয়ে গন্ধ বেরোচ্ছে! নতুন নাকি পুরনো বুঝতে পারছি না!”, পুজোয় এক নেটিজেনের কাছে শাড়ি পেয়ে মন্তব্য রানু মণ্ডলের

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোশ্যাল মিডিয়া, আমাদের সামনে অনেক নতুন জিনিস প্রতিনিয়ত নিয়ে আসতে সাহায্য করে থাকে। নেট মাধ্যমের সাহায্যে আমরা এমন অনেক জিনিস দেখতে পাই যা হয়তো কখনোই খালি চোখে দেখা সম্ভব হতো না।। এই সোশ্যাল মিডিয়া কিন্তু বহু মানুষের প্রতিভা তুলে ধরতেও সাহায্য করেছে জনগণের কাছে। যেমন বছরখানেক আগে এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তুমুল ভাইরাল হয়ে উঠে এসেছিলেন রানাঘাট স্টেশন এর বাসিন্দা রানু মন্ডল।

স্টেশনে বসবাস করলেও অসাধারণ গলায় গান গাইতেন রানুদি। একদিন এক ইঞ্জিনিয়ার যুবক অতীন্দ্র চক্রবর্তী রানু মন্ডলের এই গান রেকর্ড করে তার সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেন এবং মুহূর্তেই সেটা ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়ে ওঠে। এমনকি শ্রোতাদের সেই গান এতটাই পছন্দ হয়েছিল যে রানুমন্ডলের জনপ্রিয়তা প্রায় বলিউড পর্যন্ত ছড়িয়ে যায়। বলিউডের জনপ্রিয় সংগীত পরিচালক হিমেশ রেশমিয়ার সঙ্গে পর্যন্ত বেশ কয়েকটি গান রেকর্ড করেছিলেন তিনি। যদিও শেষ পর্যন্ত নিজের অহংকারী মনোভাবের কারণে ধীরে ধীরে কালের নিয়মে হারিয়ে যান রানু মন্ডল।

গানের জগতে তাকে আর খুব একটা দেখা না গেলেও মাঝেসাজেই কিন্তু বিভিন্ন ইউটিউবারদের দৌলতে সোশ্যাল মিডিয়ায় রানুমন্ডলের বিভিন্ন ভিডিও ভাইরাল হয়ে উঠে আসে। ঠিক যেমন সম্প্রতি একটি ভিডিও আমরা দেখতে পেয়েছি। প্রসঙ্গত সামনেই রয়েছে দুর্গা পুজো সেই উপলক্ষে একজন ইউটিউবার রানুমন্ডলের বাড়িতে উপস্থিত হয়েছিলেন তাকে শাড়ি উপহার দেওয়ার জন্য।

ভিডিওর শুরুতেই দেখতে পাওয়া যায় ওই ইউটিউবার বলেন যে যদি দুর্গা পুজোর তারিখ রানু মন্ডল সঠিকভাবে বলতে পারেন তাহলে কিন্তু তিনি এই শাড়িটা তাকে উপহার দেবেন।। এরপর এই রানু মন্ডলের বাড়িতে উপস্থিত হন তিনি। রানু দি জানান তাকে কেউ কখনো জিজ্ঞেস করে না তিনি খেয়েছেন কিনা বা তার বাড়িতে রান্না হয়েছে কিনা? এমনকি অনেকেই তাকে ভিডিও বানানোর নাম করে পুরনো বা ছেঁড়া শাড়ি দিয়ে চলে যান। এই কথা শোনার পর যখন ওই ইউটিউবার রানুদির হাতে তার জন্য কেনা নতুন শাড়িটি তুলে দেন তখন কিন্তু অত্যন্ত খুশি হয়ে ওঠেন তিনি।

প্রসঙ্গত রানু মন্ডলকে ওই ইউটিউবের উপহার দেওয়া শাড়িটি ছিল খুব সুন্দর হলুদ রঙের লাল পাড় দেওয়া। ওই ইউটিউবার রানু মন্ডলকে শাড়িটি পড়ে একবার দর্শকদের সামনে আসার অনুরোধ জানান। এরপর তার অনুরোধে রানুদি যখন শাড়িটি পড়ে আসেন দেখা যায় তাকে একেবারে নতুন বউয়ের মতন দেখতে লাগছে।

ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর অনেকেই কিন্তু পোস্টের কমেন্ট বক্সে এই মন্তব্যটি করেছেন। এরপর ভিডিওর সবশেষে যখন রানু মন্ডলকে পুজো উপলক্ষে গান করতে বলা হয় তখন তিনি, “বাজলো তোমার আলোর বেণু” গানটি অসাধারণভাবে করে দর্শকদের শোনান।। তার গানের গলা শুনে এদিন প্রশংসা করেছেন সকলেই। নিঃসন্দেহে যদি তাকে সুযোগ দেওয়া হতো তিনি অনেক বড় গায়িকা হতেন তাতে কোন সন্দেহ নেই।

Masti vlogs bengali নামের একটি জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেলে তরফ থেকে রানুমন্ডলের এই ভাইরাল ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে যা এখনো পর্যন্ত প্রায় ৩১ হাজারের বেশি মানুষ দেখে ফেলেছেন।। ভিডিওটি পছন্দ করেছেন প্রায় ৩০০ জন এবং বহু মানুষ এটাতে কিন্তু নানান ধরনের মন্তব্য জানিয়েছেন।

রানু মন্ডল সম্পর্কিত যে কোন ভিডিওই সোশ্যাল মিডিয়ায় কিন্তু ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়ে ওঠে। আজকের এই প্রতিবেদনটি ভালো লেগে থাকলে আপনারাও কিন্তু রানু মন্ডলের এই সাম্প্রতিক ভাইরাল ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন। ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করতে ভুলবেন না।

Back to top button