সুবিশা,ল ১০ ফুটের ‘কিং কোবরা’ মন্দিরের ভিতরে, তারপর? রইলো সেই দৃশ্য!

সুবিশা,ল ১০ ফুটের ‘কিং কোবরা’ মন্দিরের ভিতরে, তারপর? রইলো সেই দৃশ্য!

সা’প এমনিতে খুব নিরীহ প্রাণী, ভীতুও বটে।কিন্তু তাও সারা পৃথিবীতে অনেক মানুষ আজ সা’পের কা’মড় খেয়ে মারা যায়।আসলে মানুষদের দেখে ভ’য় পেয়েই সাপ মানুষ কে ছো’বল মারে,অর্থাৎ বি’ষ ছোড়ে।কিন্তু কখনো কখনো মানুষের হাতেও সা’পকে ম’রতে হয়।

এর কারণ,বনাঞ্চলের অ’ভাবে সাপ খাবারের সন্ধানে জনবসতি এলাকায় ঢুকে পড়ে,আর বি’প’দে পড়ে।এরকমই একটি ঘটনা ঘটেছে উড়িষ্যার একটি মন্দিরে।সেখানে পাওয়া গেলো প্রায় ১০ ফুট দৈর্ঘ্যের একটি সা’প। তাও আবার যে সে সা’প নয়।কিং কোবরা।সা’পটিকে উ’দ্ধার করা হয়েছে উড়িষ্যার গঞ্জাম জেলার বহরমপুর থেকে।বনদপ্তরের কর্মীরা এসে উদ্ধার করে সা’পটিকে।

ভালো কথা এই যে, সাধারণের কাছে গিয়ে সাপটি প্রাণ হারায় নি।বনোদপ্তরের কর্মীদের প্রচেষ্টায় সাপটিকে বনাঞ্চলের একটি বিশেষ এলাকায় ছেড়ে দেওয়া হয়।এর কিছুদিন আগেও ৮ ফুট লম্বা একটি সা’প জলপাইগুড়ির আম্বারি এলাকায় একটি বাড়ির রান্নাঘরে ঢুকে যায়।

সেটি ভারতীয় রক পাইথন প্রজাতির।সেখানেও বনকর্মীদের সহায়তায় সা’পটি উ’দ্ধার প্রাপ্ত হয়।একথা বলতেই হবে যে পরিবেশের জন্য এদের ও বেঁচে থাকা দরকার।তাই বনকর্মীদের সাহায্যে এরা ফিরে যায় এদের নিজস্ব জায়গায়।

,

Leave a Reply

Your email address will not be published.