তাঁতের শাড়ি পরে মাকে নিয়ে আমেরিকায় ঘুরলেন গায়িকা অঙ্কিতা! বিদেশের মাটিতে গিয়েও ভোলেননি বাংলার সংস্কৃতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন: বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে অঙ্কিতা ভট্টাচার্য এমন একটি নাম যাকে এক কথায় কিন্তু সেলিব্রিটি তকমা সহজেই দেওয়া যেতে পারে। কিন্তু সব থেকে আশ্চর্যের ব্যাপার কি জানেন জনপ্রিয়তার শীর্ষস্থানে থাকা সত্ত্বেও এখনো কেউ অটোগ্রাফ চাইতে এলে অঙ্কিতা কিন্তু বেশ অস্বস্তিতে পড়ে যান। এমনকি শুভেচ্ছা বার্তায় তিনি কি লিখবেন সে কথাও বুঝতে পারেন না। সারেগামাপা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর বিগত কিছু সময় ধরেই একের পর এক গান গেয়ে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন গোবরডাঙ্গার অঙ্কিতা।

যতদিন পেরিয়ে গিয়েছে অনেক নতুন কাজের সুযোগ পাওয়ার পাশাপাশি অর্থ সম্পদের মালিক হয়েছেন অঙ্কিতা। এখনো সেলেবসুলভ আচরণ শুরু করতে পারেননি তিনি। অঙ্কিতার প্রথম শিক্ষাগুরু ছিলেন তার মা। আজ যখন অঙ্কিতা ধীরে ধীরে পরিচিতি লাভ করছেন তখনও কিন্তু তার মা-ই হলেন তার সবসময় এর সঙ্গী। এবার তাই নিজের এই প্রথম শিক্ষাগুরু তথা মাকে নিয়েই বিদেশ ভ্রমণের উদ্দেশ্যে বেরিয়ে পড়েছেন অঙ্কিতা ভট্টাচার্য। তবে পাঠকদের উদ্দেশ্যে জানিয়ে রাখি শুধুমাত্র মা নয় তার সঙ্গে রয়েছেন তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরাও।

সম্প্রতি মার্কিন মুলুকে সফর করতে গিয়েছেন জনপ্রিয় এই গায়িকা।ডিজনিল্যান্ড হলিউড সবকিছু ঘুরিয়ে দেখিয়েছেন নিজের পরিবারকে। দুর্দান্ত কিছু সেলফি তুলেছেন। আর সেই নিজস্বীতে সঙ্গী হয়েছেন তার মাও। তবে, বিদেশের মাটিতে দাঁড়িয়েও নিজের সেই চিরাচরিত লুকেই ধরা দিয়েছেন। পাশ্চাত্য পোষাক থাকলেও মুখের সেই মিষ্টি হাসি আর কপালের ছোট্ট টিপ পড়তে কিন্তু ভুলে যাননি অঙ্কিতা ভট্টাচার্য। তাকে দেখে বোঝাই যাচ্ছে না তিনি সেলিব্রিটি। সব থেকে বড় ব্যাপার এই বয়সে যেখানে বন্ধুবান্ধব বা অন্যান্যদের নিয়ে সকলে আনন্দ করতে ভালোবাসে সেই জায়গায় নিজের পরিবারকে নিয়ে তার এই আবেগ আর ভালোবাসাকে পছন্দ করেছেন সকলেই।

একজন জনপ্রিয় গায়িকা হওয়ার পরেও অঙ্কিতা কখনোই ভুলে যাননি নিজের শিকড়কে, নিজের শিক্ষাকে। আজও নিজের মা আর নিজের পরিবারকেই আঁকড়ে ধরে রয়েছেন এই গায়িকা। তাই অঙ্কিতা ভট্টাচার্যের এই সমস্ত ছবি আর ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতে না হতেই নেটিজেনরা তার প্রশংসায় রীতিমত পঞ্চমুখ হয়ে পড়েছেন বলা যায়। এই গায়িকাকে পছন্দ থাকলে আপনারাও কিন্তু তার শেয়ার করা সমস্ত ছবি আর ভিডিও দেখে নিতে পারেন। অবশ্যই নিজেদের মতামত আমাদের সঙ্গে শেয়ার করে নিতে ভুলবেন না।

Back to top button