সিঙ্গেল ফাদার হলেন ‘বউ কথা কও’ ধারাবাহিক খ্যাত অভিনেতা ঋজু বিশ্বাস!

নিজস্ব প্রতিবেদন: টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির একজন অতি পরিচিত মুখ হলেন ঋজু বিশ্বাস।‘বউ কথা কও’, ‘তোমায় আমায় মিলে’, ‘মিলন তিথি’র মতো একাধিক ধারাবাহিকে মুখ্য চরিত্রে দেখা গিয়েছে ঋজুকে। অনুরাগীদের মতে এরকম মিষ্টি অভিনেতা কিন্তু ইন্ডাস্ট্রিতে খুব কমই রয়েছেন। একজন অভিনেতা হওয়ার পাশাপাশি তিনি যে একজন ভালো মানুষ তাতে কোন সন্দেহ নেই। টেলিভিশন দুনিয়ায় রিজুর মতন অভিনেতা কিন্তু খুব কম রয়েছে।আগাগোড়াই বেছে কাজ করেন ঋজু। চরিত্র মনের মতো হলে তবেই রাজি হন অভিনেতা।

তিনি বলেন, “‘বউ কথা কও’-এর পর আমার কাছে অনেক কাজের প্রস্তাব এসেছিল। কিন্তু ছ’থেকে আট মাস আমি কোনও কাজ করিনি। তারপর ‘তোমায় আমায় মিলে’ করেছিলাম। দুটো চরিত্র একেবারে অন্য় রকম। এক জন যতটা শহুরে ছিল অন্য় জন ছিল ততটাই সাদামাঠা।” সম্প্রতি নেট মাধ্যমে ঋজু বিশ্বাসের একটি সাক্ষাৎকারের ভিডিও ভাইরাল হয়ে উঠেছে সেখানে নিজেকে সিঙ্গেল ফাদার বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। কিন্তু কেন? তবে কি সত্যিই তিনি কোন সন্তান দত্তক নিয়েছেন?

প্রসঙ্গত চরিত্রের প্রয়োজনে এখনো পর্যন্ত বহু শিশু শিল্পীর সঙ্গে কাজ করতে হয়েছে এই অভিনেতাকে। অত্যন্ত আশ্চর্যজনকভাবে পর্দার ভেতরে হোক বা পর্দার বাইরে এইসব বাচ্চাদের কিন্তু তিনি সামলান। এমনকি সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকার ভিডিওতে তিনি জানিয়েছেন তার বাচ্চাদের সাথে সময় কাটাতে খুব ভালো লাগে এবং বাচ্চাদের সামলানো কিন্তু তার জন্য একটা খুব ভালো উপায় হতে পারে। কিন্তু পর্দায় সিঙ্গেল ফাদার হলেও বাস্তবে কিন্তু এই দায়িত্ব নিতে চান না রিজু। তার কথায়,“ এটা একটা বিশাল বড় রেস্পন্সিবিলিটি। শুটিং বা কাজে যাওয়ার থেকেও এটা কিন্তু একটা বিশাল বড় দায়িত্ব”।

এরপর নিজের পছন্দ-অপছন্দ নিয়ে নানান ধরনের কথা শোনাতে দেখা যায় সকলের প্রিয় এই অভিনেতা কে।বর্তমানে তাঁর মহিলা অনুরাগীর সংখ্যাও নেহাত কম নয়। খানিক হেসে অভিনেতা বলেন, “পর্দায় আমি যাকে ভালোবাসি, তাকে কখনওই পাই না। এটাই আগাগোড়া হয়ে এসেছে। কিন্তু কাকিমা-বৌদিরা আমাকে খুব ভালোবাসেন। কে জানে তাঁরা হয়তো আমাকে তাঁদের ছেলের মতো দেখেন বা আমার মতোই কাউকে বাড়ির জামাই হিসেবে দেখতে চায়।” প্রায় বহু সময় পড়ে কামব্যাক করেছেন এই অভিনেতা। স্বাভাবিকভাবেই দর্শকদের মধ্যে তাকে ঘিরে উন্মাদনা রয়েছে তুঙ্গে।

সম্প্রতি বেশ কয়েকদিন আগে টলিউড ফোকাস কলকাতা নামের একটি জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেলের থেকে এই সাক্ষাৎকারের ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে, যা এখনো পর্যন্ত দেখে ফেলেছেন প্রায় এক লক্ষ মানুষ। ভিডিওটি পছন্দ করেছেন প্রায় দুই হাজারের কাছাকাছি মানুষ।

যদি আপনাদের ও এই ভিডিওটি ভালো লেগে থাকে সেক্ষেত্রে অবশ্যই কিন্তু আমাদের প্রতিবেদনটি একটি লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার করে দিতে ভুলবেন না। বিস্তারিত জানতে হলে নজর রাখতে থাকুন আমাদের পরবর্তী প্রতিবেদন গুলির উপর।

Leave a Comment