পুজোয় রাজ্যবাসীকে বিরাট উপহার মুখ্যমন্ত্রীর, এবার থেকে ভেলোরে সম্পূর্ণ বিনা পয়সায় চিকিৎসা করাতে পারবে বাঙালি!

পুজোয় রাজ্যবাসীকে বিরাট উপহার মুখ্যমন্ত্রীর, এবার থেকে ভেলোরে সম্পূর্ণ বিনা পয়সায় চিকিৎসা করাতে পারবে বাঙালি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- সাধারণ মানুষের পাশে সর্বদা যথাসম্ভব থাকার চেষ্টা করেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এই জন্য বিভিন্ন সময়ে সরকার কর্তৃক লাগু করা হয়েছে নতুন নতুন নিয়ম। আনা হয়েছে বিভিন্ন রকম অত্যাধুনিক সুবিধা । কখনো সবুজসাথী তো কখনো কন্যাশ্রী কখনো আবার খাদ্য শ্রী বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে বাংলাকে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এবার আরও একধাপ এগিয়ে গেল পশ্চিমবঙ্গ সরকার । সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্বাস্থ্যসাথী নিয়ে এক বিরাট ঘোষণা করলেন ।

চিকিৎসা ব্যবস্থায় মানুষজন কলকাতা থেকে অনেকটা বেশি প্রেফার করে ভেলোর কে । তাই ভেলোর গামী যেসব ট্রেন যায় সেখানে নিত্যদিন দেখা যেত প্রচুর বাঙালিকে। । কিন্তু সেখানে গিয়ে লাখ লাখ টাকা খরচা করে চিকিৎসা করা হতো ঠিকই তবে ঠিক মন ভরে না । এবার এই বিশাল সংখ্যক মানুষের পাশে এসে দাঁড়াল রাজ্য সরকার । আমরা জানি গত ৬ অক্টোবর থেকে পশ্চিমবঙ্গ সরকার স্বাস্থ্য সাথী কার্ড এর নাম নথিভুক্ত কাজ শুরু করেছে । এবং এই স্বাস্থ্য সাথী কার্ড এর আওতায় আপনি যে শুধু মাত্র পশ্চিমবঙ্গে এর সুবিধা পাবেন এমনটা কিন্তু নয় । তাহলে কি? আসুন দেখে নেওয়া যাক ।

সম্প্রতি রাজ্য সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে স্বাস্থ্য সাথী আওতায় থাকা মানুষজন এবার থেকে ভেলোরের সিএমসি হাসপাতালে পাবে চিকিৎসা । সম্প্রতি এই ঘটনা সামনে আসাতে রীতিমতো খুশির বাঁধ ভেঙেছে সাধারণ মানুষের । যদিও এ ব্যাপারে নাক সিঁটকেছে বিজেপি ।

কিছুদিন আগে বিজেপির ডাক্তার অ্যাসোসিয়েশন থেকে বলা হয় যে এই স্বাস্থ্যসাথী তুলনায় প্রধান মন্ত্রী আয়ুষ্মান যোজনা অনেক গুনে ভালো ।তবে চুপ থাকেনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও । তিনি বলেছিলেন একটি প্রশাসনিক বৈঠকে যে কেন্দ্র যদি চাই রাজ্যের মধ্যে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প চালু করতে তাহলে তাতে আমার কোন আ-প-ত্তি নেই আমরা দু’বছর আগে থেকে স্বাস্থ্য সাথী পরিকল্পনা নিয়েছি এবং চালু করেছি রাজ্যে । এর পরও যদি কেন্দ্র চায় আয়ুষ্মান প্রকল্প ভারত যেতে তাহলে তাদেরকে স্বাগত । কিন্তু এর জন্য রাজ্য সরকার এক টাকাও খরচা করবে না । সম্পূর্ণ ১০০% খরচ বহন করবে কেন্দ্রীয় সরকার । এর পাশাপাশি শুধুমাত্র যে ভেলরে সিএমসি হাসপাতালে সাথে গাঁটছাড়া বেঁধেছেন রাজ্য সরকার তেমনটা নয় , পাশাপাশি দিল্লির এইমস সাথে গাঁটছড়া বাঁধার পরিকল্পনা করছে রাজ্য ।


Leave a Reply

Your email address will not be published.