যে কোন অনুষ্ঠানে বাড়িতে খুব সহজেই বানিয়ে ফেলুন দারুন সুস্বাদু ধোকার ডালনা! রইল সহজ রেসিপি।

যে কোন অনুষ্ঠানে বাড়িতে খুব সহজেই বানিয়ে ফেলুন দারুন সুস্বাদু ধোকার ডালনা! রইল সহজ রেসিপি।

নিজস্ব প্রতিবেদন :-আমরা জানি বাঙালি ভোজন রসিক । বাঙালি খাবার ব্যাপারে কোনো রকম আপস করতে নারাজ । এর পাশাপাশি যেহেতু শীতের আমেজ পড়ে গেছে তাই পিকনিকের দেখা মিলছে দু’এক জায়গায় আপনি পিকনিকে একবার চেষ্টা করে দেখতে পারেন মিলবে অনেকখানি প্রশংসা । আজকের রেসিপি টির নাম হল ধোঁকার ডালনা ।

আপনারা হয়তো ভাবছেন এটা আবার কঠিন কেমন কাজ বাড়িতে অনেকেই অনায়াসে যেতে পারবেন কিন্তু এই মুহূর্তে আমি যেরকম ভাবে এই রেসিপির কথা বলতে চলেছি সেরকমভাবে এর আগে হয়তো আপনারা খাননি ।

ধোঁকার জন্য যে সমস্ত উপকরণ লাগবে তা হলো ধোকার জন্য- ২ ৫০ গ্রাম কুমড়ো, ১/২ কাপ ছোলার ডাল, ১/২ ইঞ্চি আদা, একটা  কাঁচালঙ্কা, ১ চা চামচ জিরে গুঁড়ো, ৪ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, ৪ চা চামচ কালোজিরে,১ চিমটে হিং, এক চা চামচ চিনি, ১ টেবিল চামচ তেল, ১ কাপ বা প্রয়োজনমতো তেল (ধোকা ভাজার জন্য) , স্বাদমতো নুন ।

ডালনা এর জন্য উপকরণ গুলি হল ৪টে আলু ডুমো করে কাটা , ১/৪ চা চামচ জিরে, ১টা তেজপাতা, ১টা শুকনো লঙ্কা, ১ চা চামচ লঙ্কা গুঁড়ো, ১/২ চা চামচ আদাবাটা, ২ চা চামচ জিরে গুঁড়ো, ১ চা চামচ ধনে গুঁড়ো, ১/৪ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, ২ টেবিল চামচ তেল, স্বাদমতো নুন।

প্রথমে ছোলার ডাল কে বেশ কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রেখে তার সাথে আদা এবং কাঁচালঙ্কা দিয়ে একটি ব্লেন্ডারে ভালোমতন ব্লেন্ড করে নিতে হবে। তারপর কড়াইয়ে মধ্যে কিছুটা পরিমাণ তেল দিয়ে তার মধ্যে হিং আর ফরঙ দিয়ে কেটে রাখা কুমড়ো গুলি দিতে হবে। এবার এতে জিরে গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো ও নুন দিয়ে মিশিয়ে নিতে হবে।

কুমড়োগুলো একটু নরম হলে আঁচ কমিয়ে ঢাকা দিয়ে রাখতে হবে।কুমড়োগুলো পুরোপুরি সেদ্ধ হয়ে গেলে ভালো করে ভেঙে মিশিয়ে নিতে হবে। এবার এতে বেটে রাখা ডালটা দিয়ে দিতে হবে।ভালো করে নাড়িয়ে চিনিটা দিয়ে মিশিয়ে নিতে হবে। মিশ্রণটা কড়াই থেকে ছেড়ে আসলে নামিয়ে নিতে হবে

আগে থেকে তেল মাখানো প্লেটে ঢেলে জমিয়ে নিতে হবে। ১০ মিনিট পর বরফি আকারে কেটে নিতে হবে।এবার কড়াইয়ে ১ টেবিল চামচ তেল দিয়ে আলুগুলো ভেজে তুলে রাখতে হবে।এতে আরও ১ টেবিল চামচ তেল দিয়ে জিরে, তেজপাতা, শুকনো লঙ্কা ফোড়ন দিতে হবে।লঙ্কা গুঁড়ো ও হলুদ গুঁড়ো দিয়ে মশলা কষাতে হবে।

মশলা থেকে তেল ছেড়ে আসলে ভেজে রাখা আলু গুলো দিয়ে দিতে হবে। কিছুক্ষন নাড়িয়ে ৩০০ মিলি.লি. অথবা প্রয়োজন মতো জল ও স্বাদমতো নুন দিয়ে ঢাকা দিয়ে দিতে হবে।আলুটা সেদ্ধ হয়ে গেলে আঁচ বন্ধ করে ভেজে রাখা ধোকা গুলো ঝোলে দিয়ে কিছুক্ষন ঢাকা দিয়ে রেখে দিতে হবে। সময় মতো গরম গরম পরিবেশন করতে হবে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.