বাড়িতে সহজ পদ্ধতিতে পেঁয়াজের খোসা দিয়ে বানিয়ে ফেলুন হেয়ার প্যাক লোশন

নিজস্ব প্রতিবেদন : পেঁয়াজ রান্না ঘরের এমন একটি জিনিস যা কিন্তু কমবেশি প্রায় সব সবজি রান্না করতেই ব্যবহার করা হয়ে থাকে। অনেকেই সাধারণত পেঁয়াজ রান্না করার পরে তার খোসা কিন্তু ফেলে দিয়ে থাকেন। কিন্তু আমাদের আজকের এই প্রতিবেদনে আমরা এমন একটা টিপস আপনাদের সাথে শেয়ার করে নিতে চলেছি যেটা জানার পর আপনারা কিন্তু কখনোই পেঁয়াজের খোসা ফেলবেন না। এই খোসা ব্যবহার করে কত কাজ যে হতে পারে তা হয়তো আপনাদের জানা নেই।। পেঁয়াজ কিন্তু আমাদের চুলের জন্য অত্যন্ত উপকারী একটা জিনিস। অনিয়ন অয়েল থেকে শুরু করে বিভিন্ন হেয়ার প্যাক কিন্তু আমাদের নানান ধরনের কাজে এসে থাকে। চলুন তাহলে দেরি না করে জেনে নেওয়া যাক আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদন।

  • পেঁয়াজের খোসার বিশেষ কার্যকারিতা:

পেঁয়াজের খোসার মধ্যে কিন্তু অনেক গুন রয়েছে। আজকে আমরা এই খোসা দিয়ে চুলের জন্য প্রয়োজনীয় দুটি মিশ্রণ তৈরি করব যেগুলি ব্যবহার করলে কিন্তু নানান ধরনের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

১) প্রথম পদ্ধতিতে ওভেনে জল গরম করে তার মধ্যে বেশ কিছুটা পরিমাণ পেঁয়াজের খোসা বসিয়ে ভালো করে সেদ্ধ করে নিতে হবে। তখন পেঁয়াজের খোসা ভালোভাবে সেদ্ধ হয়ে যাবে অর্থাৎ এর মধ্যে থাকা সমস্ত নির্যাস জলের মধ্যে চলে যাবে তখন দেখবেন ধীরে ধীরে এটা রং পরিবর্তন করে লালচে বর্ণের হয়ে গিয়েছে। এবারে এই পেঁয়াজ সেদ্ধসহ জলটিকে আপনারা অন্য একটি জায়গাতে তুলে রেখে ছাঁকনি দিয়ে ছেঁকে নিন।

সেই জলের মধ্যে আপনাদের দিয়ে দিতে হবে দুইটি অরেঞ্জ কালারের ভিটামিন ই ক্যাপসুল। বাজারে কিন্তু সাধারণত দুই ধরনের ভিটামিন ই ক্যাপসুল বিক্রি করা হয়ে থাকে, একটা সবুজ আর একটা কমলা। আজকে আপনাদের কমলা কালারের ক্যাপসুল টি ব্যবহার করতে হবে। যাইহোক ভিটামিন ই ক্যাপসুল এর সাথে পেঁয়াজের খোসা দিয়ে তৈরি এই মিশ্রণটি অবশ্যই আপনারা স্নান করার আগে মোটামুটি আধ ঘন্টা চুলে লাগিয়ে রেখে দিতে পারেন।। এরপর যদি শ্যাম্পু করে নিতে পারেন তাহলে খুবই ভালো, না করলেও অসুবিধা নেই। এই মিশ্রণটি নিয়মিত চুলে আপনারা যদি ব্যবহার করতে পারেন তাহলে কিন্তু আপনার চুল পড়ার সমস্যা থেকে আপনি মুক্তি পেয়ে যাবেন পাশাপাশি আপনার চুল হয়ে উঠবে তন্তু উজ্জ্বল এবং সুন্দর।

২) এবারে দ্বিতীয় যে পদ্ধতি প্রসঙ্গে আপনাদের জানাতে চলেছি সেই পদ্ধতিতে কিছুটা পরিমাণ পেঁয়াজের খোসা নিয়ে শুকনো খোলায় ভালো করে ভেজে নিতে হবে। দেখবেন ধীরে ধীরে এটা কিন্তু কালচে বর্ণ ধারণ করে একেবারে ছোট হয়ে কুঁকড়ে যাচ্ছে। তারপর এই মিশ্রণটিকে একটি চালনির সাহায্যে ভালো করে চেলে নিয়ে দানাদার অংশ থাকলে ভেঙে একেবারে মিহি গুঁড়োতে রূপান্তরিত করে ফেলুন। এবারে এই মিশ্রণের মধ্যে আপনারা দিয়ে দিন কয়েক ফোঁটা লেবুর রস আর এলোভেরা জেল। বাজারচলতি বা বাড়িতে তৈরি দুই প্রকার এলোভেরা জেল কিন্তু আপনারা ব্যবহার করতে পারেন। মোটামুটি ঘন একটা মিশ্রণ তৈরি হয়ে গেলে ভালো করে এটাকে স্নান করার আগে লাগিয়ে রেখে দিন এবং স্নান করার সময় অবশ্যই ভালো করে শ্যাম্পু বা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

এটি এমন একটি মিশ্রণ যা আপনাদের চুলের ঘনত্ব বৃদ্ধিতে এবং দ্রুত যাতে চুল বাড়ে তাতে সাহায্য করবে। এগুলি কিন্তু অত্যন্ত সহজ আর প্রাকৃতিক পদ্ধতি সুতরাং আপনাদের কোন রকমের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হবে না বলাই যায়। আজকের এই বিশেষ দুটি টিপস আপনাদের কেমন লাগলো তা অবশ্যই আমাদের সঙ্গে কমেন্ট বক্সে শেয়ার করে নিতে পারেন। রূপচর্চা সম্পর্কিত এই ধরনের আরো টিপস জানতে হলে আমাদের অন্যান্য প্রতিবেদন গুলির উপর নজর রাখতে থাকুন।

Back to top button