কোনো কেমিক্যাল ও ফ্রিজ ছাড়াই মাছ করুন সারাবছর সংরক্ষণ, রইলো সেই দুর্দান্ত ঘরোয়া ট্রিকস

নিজস্ব প্রতিবেদন: বাঙালি অথচ মাছ খেতে পছন্দ করেন না এটা কিন্তু হতেই পারেনা। যেকোনো উৎসব অনুষ্ঠানে বা ছুটির দিনে বাঙালির পাতে কিন্তু মাছ থাকাটা একেবারে অত্যন্ত আবশ্যক। তবে আজকালকার ব্যস্ততম জীবনে যে সমস্যাটা সবথেকে বেশি দেখা যায় সেটা হল মানুষ কিন্তু অফিস কাছারি বা অন্যান্য কাজের ফাঁকে প্রতিদিন বাজারে যেতে পারেন না। এবার যদি বাজারে না যাওয়া হয় সেক্ষেত্রে মাছ কিনতেও কিন্তু সমস্যা হবে। ফ্রিজের সাহায্যে বেশ কয়েকদিন পর্যন্ত মাছ সংরক্ষণ করা গেলেও সেটা কিন্তু খুব বেশিদিন কাজ করে না।

অনেক বড় বড় কোল্ড স্টোরেজে কিন্তু নানান ধরনের কেমিক্যাল দিয়ে মাছ সংরক্ষণ করা হয়ে থাকে। এতে অনেকদিন পর্যন্ত মাছ ভালো থাকলেও তার পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায়। সুতরাং আপনারা চাইলেও কিন্তু সেই পদ্ধতি কাজে লাগাতে পারবেন না। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা তাই আপনাদের জন্য নিয়ে চলে এসেছি কোনো রকমের কেমিক্যাল আর ফ্রিজ ছাড়াই সারা বছর ভালোভাবে মাছ সংরক্ষণের পদ্ধতি। দুর্দান্ত এই উপায়টি কিন্তু নিঃসন্দেহে আপনাদের কাজে লাগবে।

কোন রকমের কেমিক্যাল বা ফ্রিজ ছাড়াই মাছ সংরক্ষণের পদ্ধতি:

প্রথমেই আপনাদের পরিমাণ মতন মাছ অর্থাৎ যতটা মাছ আপনারা সংরক্ষণ করতে চান নিয়ে এগুলির মাথা কেটে নিতে হবে। প্রথমেই আমরা মাঝারি বা ছোট মাছের কথা বলবো। তারপর ওই মাছগুলোকে ভালো করে জলের মধ্যে নিয়ে ধুয়ে নিন। সামান্য লবণ নিয়ে মাছগুলোর উপরে মাখিয়ে নিতে হবে। মাছের পরিমাণ অনুযায়ী এর উপরে আন্দাজ মতন ভিনিগার ছড়িয়ে দিন। আরো একবার আলতো হাতে মাখান।

এবার আপনাদের নিয়ে নিতে হবে একটা একেবারে পরিষ্কার আর শুকনো কাঁচের জার।জারটির একটি ছোট তেজপাতা দিয়ে দিন এবং এক চামচ লঙ্কার গুঁড়ো যোগ করুন। এবার এই মাছ গুলিকে একটা একটা করে সেই কাচের জারের মধ্যে লম্বা ধরনের শুইয়ে দিন। যতটা পরিমাণ মাছ থাকবে সেই অনুযায়ী কিন্তু আপনাদের কাচের জার আর অন্যান্য উপাদান আগে থেকেই জোগাড় করে রাখতে হবে। এবার জার গুলির মধ্যে আপনারা মোটামুটি ৪০ থেকে ৫০ মিলি ভেজিটেবল অয়েল দিয়ে দিন।

এরপর আপনাদের যে কাজটি করতে হবে তা হল কাঁচের জারের মধ্যে ভালো করে ঢাকনা আটকে দিন। এবার গ্যাসে একটি প্যান বসিয়ে তাতে এক টুকরো কাপড় পেতে দিতে হবে। এবার সেই কাপড়ের উপরে যতগুলি কাচের জার আপনারা নিয়েছেন সেগুলিকে বসিয়ে দিন এবং একেবারে ভর্তি করে জল দিয়ে পূরণ করুন। এবার পাত্রটি কে ঢাকা দিয়ে মোটামুটি তিরিশ মিনিট পর্যন্ত ওই অবস্থায় রেখে দিন।

নির্দিষ্ট সময় অন্তর আপনাদের কাচের জারগুলিকে মাছ সহ জল থেকে বের করে আনতে হবে এবং সেগুলিকে কোন ভালো জায়গায় তুলে সংরক্ষণ করে রাখতে হবে। খেয়াল রাখবেন জার গুলি এমনভাবে আটকানো থাকে যেন তাতে কোন বাতাস প্রবেশ করতে না পারে। কারণ এয়ারটাইট জায়গায় না রাখলে কিন্তু মাছ নষ্ট হয়ে যাবে। এভাবে দীর্ঘদিন আপনারা মাছ সংরক্ষণ করতে পারবেন খুব সহজেই এবং প্রয়োজনে তা রান্না করে নিতে পারবেন। বিশেষ এই পদ্ধতিটি আপনাদের কেমন লাগলো তা অবশ্যই আমাদের সঙ্গে শেয়ার করে নিতে কিন্তু ভুলবেন না।

Back to top button