‘২০২১ এ মমতাকে নবান্ন ছাড়া করে তবে আমরা থামব’- বি’স্ফো’রক তেজস্বী সূর্য!

‘২০২১ এ মমতাকে নবান্ন ছাড়া করে তবে আমরা থামব’- বি’স্ফো’রক তেজস্বী সূর্য!

নিজস্ব সংবাদদাতা: পশ্চিমবঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়এর সরকারের দু’র্নীতি, গু’ন্ডা রাজ, কেলেঙ্কারি ও অ’পব্য’বহারের বিষয়গুলি তুলে ধরতে, বৃহস্পতিবার বিজেপির যুব শাখা ভারতীয় জনতা যুব মোর্চা (বিজেওয়াইএম) একটি বিশাল বিক্ষোভের নেতৃত্ব দেয় – নবান্ন চলো অভিযান। কিন্তু এই প্রতিবাদটি ব্যাপক স’হিং’স ও পুলিশি ব’র্ব’রতার কারণে তী’ব্রতর হয়েছিল যা কলকাতার রাস্তাগু’লিকে প্রায় যু’দ্ধের ময়দানে পরিণত করেছিল।কলকাতায় বিক্ষোভের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন বিজেওয়াইএমের জাতীয় সভাপতি তেজস্বী সূর্য।

রবিবার সংবাদমাধ্যমের সাথে একচেটিয়া পুলিশ ব’র্ব’রতা এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের বি’রু’দ্ধে কথা বলেন তিনি।বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, সূর্য এইরকম অনেক সমাবেশ করতে এই রাজ্যে আসতে থাকবে।“দলটি যুব মোর্চায় আমাদের সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত জাতীয় রাষ্ট্রপতিকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর অর্থ, বাংলার রাজনৈতিক গুরুত্ব এখন সর্বোচ্চ।

এবং এটি ঠিক শুরু। তিনি আমাদের যুব মোর্চা নেতাদের অনুপ্রাণিত করতে এ জাতীয় বহু সমাবেশে ফিরে আসবেন, ”যোগ করেন তিনি।মমতা সরকারের অবাধ আ’ক্র’মণে সূর্য এটিকে বাংলার রাজনীতির ইতিহাসে একটি “কালো দিবস” বলে অভিহিত করেন।তিনি আরো বলেন, “আজ, দিবালোকে গণতন্ত্র এবং সংবিধানকে হ’ত্যা করা হয়েছিল।

মমতা সরকার দেশের সবচেয়ে খারাপ এবং দু’র্নী’তি’বাজ সরকার। গত দুই বছরে, তার দল বর্বরভাবে 120 জন কর্মচারীকে হ’ত্যা করেছে।”সমাবেশের পরে সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউয়ের বিজেপি প্রধান কার্যালয়ে গণমাধ্যমকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, “এটি কেবল শুরু এবং আমরা বাংলায় বিজেপির বিজয় নিশ্চিত না করা পর্যন্ত এ জাতীয় আ’ন্দো’লন চালিয়ে যাব।”

, ,

Leave a Reply

Your email address will not be published.