নিউজ

‘আমি মুসলিম মেয়ে, হিন্দু স্বামীর ঘরে বেশ সুখে আছি।” কিসের লাভ জি’হাদ? রেগে গেলেন জারা!

নিজস্ব প্রতিবেদন:- কথাতে আছে ভালোবাসা জাতি ধর্ম বর্ণ মানে না । অর্থাৎ প্রেম বা ভালোবাসা কোন ধর্মকে বেছে হয়না। প্রেম-ভালবাসা যেকোনো মানুষের প্রতি যে কোন সময় হতে পারে। সেখানে থাকে না কোনো বাধ্যবাধকতা। কিন্তু এদেশে রীতিনীতি বলে সম্পূর্ণ উল্টো কথা। কোথাও যেন হিন্দু মুসলমান ভাই ভাই কথাটা বইয়ের পাতায় আবদ্ধ। বাস্তবে রূপ একদম অন্য। সেই ঘটনার প্রমাণ করলো তানিস্ক এর বিজ্ঞাপন ।

সম্প্রতি তানিস্ক এর একটি বিজ্ঞাপন প্রকাশ করে যেখানে দেখানো হয় একটি মুসলিম পরিবারে হিন্দু মেয়ের বিবাহ । অবশ্য তার সাথে তাদের গয়নার অলংকারের সুন্দর একটি বিজ্ঞাপন প্রকাশ করা হয়েছিল ।কিন্তু সেই বিজ্ঞাপন কে নিয়ে শুরু হয়েছে ইদানিং বি-ত-র্ক । উঠেছে টুইটারে তর্কের ঝড় ।পক্ষে-বি-প-ক্ষে খাড়া হয়েছে জবাব ।রীতিমতো চাপে পড়ে সেই বিজ্ঞাপন মুছে ফেলে তানিস্ক।

কিন্তু তার পরেও ‘‌লাভ জিহাদ’‌, শব্দটা নিয়ে বি-ত-র্কের শেষ নেই। কেউ বলে ধর্মের মোড়লদের বানিয়ে তোলা এই শব্দ আসলে ধর্মের কথাই নয়। কেউ আবার বলে, অন্য ধর্মের শক্তি নেই এমন করে বিধর্মী বিবাহকে উদযাপন করার। তাই নিয়ে চলে দড়ি টানাটানি। কিন্তু প্রেমের কাছে ধর্ম কবে জিতেছে?‌ সেই সিদ্ধান্ত ছেড়ে দিলাম আমরা আপনাদের উপরে তবে সম্প্রতি সেই ঘটনাকে নিয়ে সরব হয়েছেন যারা ।

বিজ্ঞাপন তুলে নেওয়া নিয়ে ফের আরও বড় হতে থাকে বি-ত-র্কে ঝ-ড়। এবং সেই বি-ত-র্কে ঝ-ড়ের মাঝে ফের আবার এক বড়োসড়ো বি-ত-র্ক ঘটে একটি পোস্ট কে কেন্দ্র করে। সেই পোষ্টটি যারা রাজ পাড়োয়ালের । তিনি একজন মুসলিম মেয়ে যিনি একজন হিন্দু ছেলেকে বিবাহ করেন। সম্প্রতি তিনি তার বিবাহের ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করে বলেছেন ” এই পোস্ট তনিস্কের জন্য। এবং তাঁদের জন্য যারা এই বিজ্ঞাপন বয়-কটের ডাক দিয়েছেন। অনেকেই প্রশ্ন তুলেছিলেন বিজ্ঞা-পনটি দেখে কেন মেয়েটিকে মুসলিম পরিবারের মেয়ে দেখানো হল?

তাঁকে হিন্দু পরিবারের বউ দেখানো হয়নি কেন? আমি মুসলিম পরিবারের মেয়ে জারা ফারিকি।হিন্দু ছেলে নিখিল পডোয়ালকে বিয়ে করেছি ২০১৬তে। এবং সুখে আছি। এবার কি বলবেন আপনারা?” যারা সেই পোষ্টটি কে নিয়ে এখনো পর্যন্ত বি-ত-র্কে ঝ-ড় থামেনি । তবে প্রেম বিবাহ বা ভালোবাসা এসবে কখনো ধর্ম টেনে আনা উচিত নয় বলে মনে করছেন অনেকে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button