রান্নাঘরে দুর্গন্ধ হলে কীভাবে তা দূর করবেন? রইলো কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি

নিজস্ব প্রতিবেদন :রান্নাঘর মানেই নানা রকমের খাবারের গন্ধে মম করবে! তাই তো? কিন্তু সব সময় তা কি হয়! ময়লা ফেলার পাত্র, মাছের আঁশটে গন্ধ এগুলো থেকে তো আর ফুলের গন্ধ ছড়াবে না। বরং দুর্গন্ধই নাকে আসবে। তাছাড়াও রোজকার নানা রকমের রান্নার গন্ধ মিলে মিশে একটা ভ্যাঁপসা গন্ধ আমাদের অজান্তেই রান্নাঘরে ছড়িয়ে দেয়।

রোজ পরিষ্কার করলেও রান্নাঘরে একটা আঁশটে গন্ধ থাকেই থাকে। ভেবে দেখুন কোন বিশেষ অনুষ্ঠানের আগে বা পুজোর আগে যখন রান্নাঘর ভালো করে পরিষ্কার করা হয় কত সময় লাগে? পরিষ্কারের পর সত্যি আলাদাই দেখায় আপনার সখের রান্নাঘরটি। কিন্তু রোজ রোজ এত সময় কোথায় ! তাই সামান্য কয়েকটি জিনিস মনে রাখুন একেক দিন এক একটা রান্নার পর ট্রাই করুন। দেখবেন সুন্দর গন্ধ আপনার রান্নাঘরে ২৪ ঘণ্টা মম করছে।

রান্না ঘরের দুর্গন্ধ দূর করার টিপসঃ

১. লেবুর কামালঃ সবচেয়ে সহজ যে কাজটি করতে পারেন তার জন্য আপনার লাগবে পাতিলেবু। গ্যাসে জল চাপিয়ে তা কম আঁচে ফোটান। ফুটতে শুরু করলে একটি পাতিলেবু দুফালা করে কেটে এতে দিয়ে দিন। কম আঁচে রেখে ৫ মিনিট ফোটাতে থাকুন। জলের বাষ্প সারা রান্নাঘরে ছড়িয়ে যাবে ধীরে ধীরে। লেবুর গন্ধ রান্নাঘরে থাকা বাজে গন্ধকে নিমেষে দূর করে দেবে। এক্সহস্ট ফ্যান থাকলে তা চালিয়ে দিন কিছুক্ষণ পর। করে দেখুন হাতেনাতে তফাৎ বুঝতে পারবেন।

রান্নাঘরে সবচেয়ে বেশি বাজে গন্ধ ছড়ায় নোংরা ফেলার ডাব্বা থেকে। এতে মাছের আঁশ, ডিমের খোসা, সব্জির খোসা কিছুক্ষণের মধ্যেই দুর্গন্ধ তৈরি করে। তাই যতক্ষণ না এটি ময়লার গাড়িতে ফেলে দিচ্ছেন তার আগে এর মধ্যে একটি পাতিলেবু কেটে রস এর মধ্যেই চিপে ফেলুন। দেখবেন গন্ধ অনেক কম বেরোচ্ছে।

২. ভিনিগার ও বেকিং সোডাঃ রান্নাঘরের সিঙ্কে ময়লা বাসনের জল, মাছ-মাংস ধোয়ার জল এসব থেকে গন্ধ ছড়ায়। এর থেকে মুক্তি পেতে একটি কাজ করতে পারেন। এক কাপ ভিনিগার ও এক চামচ ভিনিগার একসাথে ভালো করে মিশিয়ে এর মধ্যে ঢেলে দিন। ২৫-৩০ মিনিট মত রেখে তারপর কল খুলে জল চাইয়ে দিন এক মিনিট। দেখবেন বিচ্ছিরি গন্ধ ভ্যানিস। রান্নাঘরের সিঙ্ক থেকে বিচ্ছিরি দাগও দূর হয়ে যাবে।

ভিনিগার বেকিং সোডা রান্নাঘর থেকে গন্ধ দূর করতে আরেক ভাবে সাহায্য করে। জল সামান্য ফুটিয়ে তাতে এক চামচ বেকিং সোডা ও এক চামচ ভিনিগার ঢেলে দিন। গ্যাসের আঁচ কমিয়ে রাখবেন। ৫ মিনিট ফোটান। এর ভাপ সারা রান্নাঘরে ছড়িয়ে গিয়ে বাজে গন্ধ দূর করে দেবে।

৩. খারাপ গন্ধ শোষণ করতে আলু ব্যবহার করুনঃ আলু শুধুমাত্র খেতেই যে ব্যবহার হয় তা না। আলু প্রাকৃতিক ভাবে শোষক। তাই আলু রান্নাঘরের গন্ধ রিমুভার হিসাবে কাজ করতে পারে। একটি পাত্রে জল ফুটিয়ে তার মধ্যে সামান্য লবন আর দুটি আলু কেটে ১০ মিনিট ফুটিয়ে গ্যাস অফ করে দিন। যেকোনো অবাঞ্ছিত গন্ধ দূর করতে দুই ঘণ্টা রেখে দিন। দুই ঘণ্টা পরে কোন বাজে গন্ধ থাকবে না।

৪. দারুচিনির ধামাকাঃ দারুচিনি বা দারচিনির গন্ধ এত ভালো যে তা যেকোনো বাজে গন্ধকে নিমেষে মুছে দিতে পারে। তাই দারুচিনি জলে ৫ মিনিট ফুটিয়ে দেখুন। এর থেকে বেরনো বাষ্প রান্নাঘরে সুগন্ধ ছড়িয়ে দেবে।

৫. অন্যান্য টিপসঃ উপরে বলা চারটি উপায়ের যেকোনো একটি ব্যবহার করার সাথে সাথে আর যা যা করবেন-

রান্নাঘরের জানলা সব সময় খুলে রাখবেন বিশেষ করে রান্নার আয়োজন করার ও বানানোর সময়।রান্নাঘরের জিনিসপত্র, স্ল্যাপ মোছার কাপড় বা যেকোনো রান্নার কাজে ব্যবহার করা কাপড় সব সময় শুকিয়ে রাখবেন। পারলে সপ্তাহে ৩ বার এগুলো গরম জলে ভিজিয়ে পরিষ্কার করুন।

মাছের আঁশ বা মাংসে অপ্রয়োজনীয় অংশ একটি কাগজে মুড়ে প্লাসিকে ভরে ভালো করে মুখ বন্ধ করে রাখুন ফেলে দেওয়ার আগে অব্ধি।এক্সহস্ট ফ্যান বা রান্নার চিমনি শুধুমাত্র রান্নার সময় না রান্নার পরের কিছুক্ষণ চালিয়ে রাখুন।ময়লা জমিয়ে রাখবেন না। রোজ ময়লার প্লাস্টিক বদল করুন। ভেজা জিনিস একটিতে ফেলুন আর শুকনো জিনিস অন্য প্লাস্টিকে। এতে গন্ধ অনেক কম হয়।

Leave a Comment