‘বন্ধন’ সিনেমার সেই ছোট্ট শিশু অভিনেতা অংশু বর্তমানে কত বড় হয়েছে? কি পেশায় আছেন জানেন? দেখুন

নিজস্ব প্রতিবেদন : বাংলা ধারাবাহিক হোক কিংবা চলচ্চিত্র শিশুশিল্পীদের ভূমিকা কিন্তু বরাবর থেকেই অত্যন্ত বেশি। অন্যান্য দক্ষ নায়ক নায়িকাদের মতোই কিন্তু এই সমস্ত শিশু শিল্পীরা জমিয়ে অভিনয় করে থাকেন। যদিও বড় হওয়ার পর বেশিরভাগ শিশু শিল্পীকেই হয়তো অভিনয় জগত থেকে দূরে চলে যেতে দেখা যায়। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আলোচনা করতে চলেছি এরকমই একজন শিশু শিল্পীর কথা যিনি বর্তমানে বড় হয়ে গিয়েছেন।

বন্ধন সিনেমার সেই ছোট্ট শিশু অভিনেতা অংশু কে মনে রয়েছে? জনপ্রিয় অভিনেতা জিৎ-এর সাথে জমিয়ে অভিনয় করে মঞ্চ কাঁপিয়ে দিয়েছিলেন এই ছোট্ট অংশু। অত ছোট বয়সে তার অভিনয় দক্ষতা দেখে রীতিমতো অবাক হয়ে গিয়েছিলেন দর্শকেরা।যখন অংশু বন্ধন ছবিতে অভিনয় করে তখন তাঁর বয়স মাত্র ৯। বন্ধনের পাশাপাশি একাধিক বাংলা ছবিতে শিশুশিল্পী হিসাবে কাজ করেছে অংশু। তবে এই ছবির জন্যই দর্শক সবচেয়ে বেশি মনে রেখেছে তাকে।

তবে বর্তমানে এই অংশু কিন্তু একেবারেই ছোট নেই। সময়ের সাথে সাথেই অত্যন্ত হ্যান্ডসাম এবং প্রতিভাবান হয়ে উঠেছে এই ছোট্ট শিশুটি। আজকের অংশু কে দেখলে কিন্তু আপনারা একেবারে অবাক হয়ে যেতে বাধ্য হবেন। প্রথমেই জানিয়ে রাখি তার বর্তমান বয়স ২৭ বছর। ১৯৯৫ সালে কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি।

ছোট থেকেই অভিনয়ের উপর আলাদা আকর্ষণ ছিল এই খুদে শিশুর। যদিও বন্ধন সিনেমাতে অভিনয়ের সুযোগ কিন্তু অন্য কেউ পেয়েছিল। অংশু কে নিয়ে যখন তার বাবা-মা সিনেমার অডিশনে উপস্থিত হন তখন জানা যায় যে অন্য কাউকে সিলেক্ট করে দেওয়া হয়েছে। তাই তারা বাড়ি ফেরত আসতে বাধ্য হন। কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই আবার তাদেরকে ডেকে পাঠানো হয় এবং অংশুর অডিশন নেওয়া হয়।

২০০৩ সালে তার প্রথমবারের মতো অভিনয়ে হাতেখড়ি হয়। জিৎ এবং কোয়েলের নাটের গুরু ছবিতে শিশু শিল্পী হিসেবে দেখা গিয়েছিল তাকে।এরপর বন্ধন, প্রসেনজিৎ-রচনার সঙ্গে ‘অগ্নি’, ‘রাজু আঙ্কেল’, মিঠুন চক্রবর্তীর ‘এমএলএ ফাটাকেষ্ট’তেও তাকে দেখা যায় মাস্টার অংশুকে। প্রথম সিনেমাতেই নিজের অভিনয়ে বাজিমাত করে দিয়েছিলেন এই ছোট্ট শিল্পী। যদিও ধীরে ধীরে বড় হওয়ার পর নিজেকে অভিনয় জগত থেকে অনেকটাই দূরে সরিয়ে নিয়েছেন অংশু। শিশু শিল্পী হিসেবে একের পর এক কাজ করেছেন অংশু বাচ।

শিশু শিল্পী হিসেবে ক্লাস টেন পর্যন্ত মোট কুড়িটি সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। এরপর প্রায় ছয় বছর তিনি সমস্ত রকম অভিনয় থেকে বিরতি নেন। স্নাতক শেষ করার পর বেশ কয়েকটি শর্ট ফিল্ম এবং মিউজিক ভিডিওতে কাজ করতে দেখা গিয়েছিল তাকে। তবে শিশুশিল্পী হিসেবে যতটা জনপ্রিয়তা তিনি পেয়েছিলেন পরবর্তীতে কিন্তু অভিনেতা হিসেবে তাকে ততটা পরিচিতি পেতে আমরা দেখতে পাইনি।।২০১৭ সালে অংশু অভিনীত ‘টেককেয়ার’ নামের একটি শর্টফিল্ম প্রশংসা কুড়িয়ে নিয়েছিল। এরপর ‘মনসুন মেলোডিজ’ নামের একটি ওয়েব সিরিজে কাজ করেন অংশু।

তবে কেরিয়ারের দ্বিতীয় ইনিংসে অংশুর সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য কাজ স্টার জলসায় ‘কে আপন কে পর’ ধারাবাহিকে অভিনয়। এই সিরিয়ালে নেগেটিভ চরিত্রে দেখা গিয়েছিল তাঁকে।যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ার প্ল্যাটফর্মে অত্যন্ত জনপ্রিয় তিনি। অভিনয় ছাড়াও নিয়মিত মডেলিংয়ে অংশগ্রহণ করে থাকেন অংশু। আমাদের আজকের এই প্রতিবেদনটি আপনাদের কেমন লাগলো তা অবশ্যই জানাতে ভুলবেন না। এই ধরনের আরো প্রতিবেদনের আপডেট পেতে আমাদের অন্যান্য খবরাখবর গুলির প্রতি নজর রাখতে থাকুন।

Back to top button