প্রেসার কুকারে ঝরঝরে ভাত রান্নার রইলো সঠিক পদ্ধতি ও জেনে নিন কিছু গোপন কৌশল!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- ভাত আর রুটিকেই কিন্তু আমাদের দেশের প্রধান খাদ্য হিসেবে গণ্য করা হয়ে থাকে। বিশেষ করে বাঙ্গালিদের দৈনন্দিন খাদ্য তালিকায় ভাত না থাকলে যেন চলেই না। এবার এই ভাত যদি হয়ে যায় একেবারে গলা এবং কাদা কাদা তখন কিন্তু স্বাভাবিকভাবেই আপনাদের আর খেতে ভালো লাগবে না। এদিকে প্রায় সময় আমরা দেখতে পাই অনেক গৃহিণীরা অভিযোগ করে থাকেন যে হাজার চেষ্টা করার পরেও প্রেসার কুকারে সহজ উপায়ে ঝরঝরে ভাব তৈরি করা যাচ্ছে না।

দৈনন্দিন ব্যস্ততার কারণে কিন্তু আমরা অনেকেই সময় বাঁচানোর জন্য প্রেসার কুকারে ভাত রান্না করে থাকি। তাই গৃহিণীদের সমস্যার সমাধান করার জন্য আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সাথে শেয়ার করে নিতে চলেছি কিভাবে প্রেসার কুকারে সেদ্ধ চালের ভাত একেবারে ঝরঝরে করে তৈরি করতে পারবেন সেই পদ্ধতি। যদি আপনিও ভাত ভুলে যাওয়ার সমস্যার নিয়মিত ভুক্তভোগী হয়ে থাকেন তাহলে একেবারেই আমাদের আজকের এই প্রতিবেদন টি মিস করবেন না।

  • প্রেসার কুকারে ঝরঝরে ভাত রান্না করার সঠিক পদ্ধতি:

আপনাদের পরিবারের সদস্য সংখ্যা অনুযায়ী যে পাত্রের মাপ করে চাল দেন সেই পাত্রের পরিমাণ অনুযায়ী প্রথমে চাল নিয়ে নিতে হবে। এটা সকলের ক্ষেত্রেই কমবেশি হয়ে থাকে তাই আমরা আর আলাদা করে পরিমাণ উল্লেখ করলাম না। তবে অবশ্যই কিন্তু আপনারা ভালো করে পরিমাণ বুঝে নেবেন নয়তো পারফেক্ট ভাবে ভাত তৈরি হবে না। আরো একটি বিষয় জানিয়ে রাখি আপনাদের কিন্তু অবশ্যই প্রেসার কুকারের সাইজ অনুযায়ী ভাত রান্নার জন্য চাল নিতে হবে।

মোটামুটি যদি পাঁচ লিটারের প্রেসার কুকার থাকে তাহলে আধা কেজি পরিমাণ চাল আপনারা নিতে পারবেন। প্রথমেই আপনাদের ভালো করে চাল ধুয়ে নিতে হবে যাতে এর মধ্যে থাকার সমস্ত ময়লা বেরিয়ে যায়।

এবার আপনারা যে পাত্রে করে চাল নিয়েছিলেন সেটার পরিমাণেই প্রায় দ্বিগুন জল আপনাদের দিয়ে দিতে হবে। যদি আপনারা দুই কাপ পরিমাণ চাল নিয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে কিন্তু চার কাপ জল আপনাদের দিতে হবে।

এবার আপনাদের প্রেসার কুকারের ঢাকনা লাগিয়ে দিতে হবে এবং দেখে নিতে হবে ঢাকার মধ্যে রবার লাগানো আছে কিনা! রবার না লাগানো থাকলে কিন্তু আপনি সমস্যায় পড়বেন। এরপর গ্যাস একেবারে হাই ফ্লেমে চালিয়ে দিতে হবে। যতক্ষণ পর্যন্ত না দুটো সিটি পড়ে যাচ্ছে ততক্ষণ এভাবেই রাখুন। যদি হাই ফ্লেমে গ্যাস থাকে তাহলে কিন্তু দুইটা সিটি পড়তে বেশি সময় লাগবে না।

এরপর কিছুক্ষণ সময়ের মধ্যেই কিন্তু আপনাদের ভাত একেবারে ঝরঝরে ভাবে তৈরি হয়ে যাবে। তবে প্রেসার কুকারের ঢাকনা কিন্তু খুব বেশি সময় ধরে বন্ধ করে রাখবেন না এতে ভাত গলে যেতে পারে।

এটা খুবই সহজ আর সাধারণ পদ্ধতি এভাবে বাড়িতে ঝরঝরে ভাত তৈরি করে অবশ্যই নিজেদের অভিজ্ঞতা আমাদের প্রতিবেদনের কমেন্ট বক্সে শেয়ার করে নিতে ভুলবেন না।

Back to top button