অর্ধেক খাটনি কমাতে রইলো ৬ টি সহজ ও দুর্দান্ত কিচেন টিপস, জেনে নিন

নিজস্ব প্রতিবেদন : দৈনন্দিন জীবনের ব্যস্ততার মাঝে বিভিন্ন কিচেন টিপস বা নানান ধরনের ছোটখাট টোটকা কিন্তু আমাদের কাজ অত্যন্ত সহজ করে থাকে।। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কি হয় আমরা হয়তো এই সমস্ত টোটকা নিয়ে সবিশেষ খুব একটা কিছু জানিনা। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা তাই আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি বিশেষ কয়েকটি কিচেন টিপস যা অত্যন্ত কার্যকরী।

সুতরাং ঘরোয়া দৈনন্দিন কাজকর্মের থেকে যদি আপনি একটু হলেও রেহাই চান এবং সহজে কাজ শেষ করতে চান তাহলে কিন্তু অবশ্যই আমাদের এই প্রতিবেদনটি একেবারে শেষ পর্যন্ত পড়ুন। প্রয়োজন হলে সঙ্গে থাকা ভিডিওটি অবশ্যই দেখে নিতে পারেন। চলুন তাহলে আর দেরি না করে আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি শুরু করা যাক।

কয়েকটি প্রয়োজনীয় কিচেন টিপস যা দৈনন্দিন সময় বাঁচাতে কার্যকরী:

১) করলা যে এতটাই তেতো হয় যে বাড়ির বাচ্চা থেকে শুরু করে অনেক বড়রাও কিন্তু খেতে চান না। সেই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আজকে আমরা প্রথমেই এমন একটি টিপস শেয়ার করব যাতে বাচ্চা থেকে বড় কিন্তু সকলেই করলা একেবারে চেটেপুটে খেয়ে নেবে। প্রথমেই আপনারা ভালো করে ধুয়ে ছোট ছোট টুকরো করে করোলা কেটে নিন।

তারপর এই করলার মধ্যে আপনারা দিয়ে দিন পরিমাণ মতন আলু, পরিমাণ মতন পেঁয়াজ কুচি আর বেশ কয়েকটি কাঁচা লঙ্কা, রসুন কুচি আর স্বাদমতো লবণ। জানিয়ে রাখি তেঁতো জিনিস রান্না করলে কিন্তু একটু লঙ্কার পরিমাণ বেশি ব্যবহার করতে হয়। এবারে এই মিশ্রণের মধ্যে আপনাদের যোগ করে দিতে হবে হলুদ গুঁড়ো। হাতের সাহায্যে সকল উপকরণ খুব ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। এরকমভাবে মেখে নিয়ে দশ মিনিট অপেক্ষা করার পরে যদি আপনারা করোলা ভেজে নেন তাহলে কিন্তু আর এটা আগের মতন অত্যন্ত তেতো থাকবে না।

২) সবজি বা যে কোন জিনিস কাটতে গেলেই কিন্তু আমাদের রান্নাঘর অত্যন্ত নোংরা হয়ে যায়।। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আপনারা একটি মাঝারি সাইজের ঝুড়ি নিয়ে তাতে যদি পলিব্যাগ সেট করে তার ওপরে বিভিন্ন সবজি বা ফলের খোসা ফেলেন তাহলে কিন্তু আর রান্নাঘর নোংরা হবে না। আর আপনাদের সময় অনেকটাই কিন্তু বেঁচে যাবে।

৩) অনেক সময় রান্নাঘরে একটার মধ্যে আরেকটা গ্লাস রেখে দিলে কিন্তু সেগুলো কে আর ছাড়ানো যায় না।এর জন্য আপনারা সামান্য পরিমাণে সরষের তেল ব্যবহার করতে পারেন। হালকা করে গ্লাস ঘুরিয়ে সরষের তেল দিয়ে দিতে হবে। তারপর মিনিট দুয়েক সময় অপেক্ষা করে আলতো হাতে ঘষে নিলেই কিন্তু দেখবেন গ্লাসগুলি খুলে গিয়েছে। অত্যন্ত সহজ একটা টিপস। অবশ্যই ট্রাই করে দেখবেন।

৪) চিনি এমন একটি জিনিস যা প্রায় কমবেশি অনেক রান্নার কাজে ব্যবহার করা হয়। তবে চিনিতে কিন্তু পিঁপড়ের উপদ্রব খুব বেশি দেখা যায়। বিশেষ করে বর্ষাকালে এই উপদ্রব অনেকটাই বৃদ্ধি পায়। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আপনারা যে বয়াম বা পাত্রের যিনি রাখবেন তাতে যদি কয়েকটা লবঙ্গ দিয়ে দিতে পারেন তাহলে কিন্তু আর অসুবিধা হবে না। লবঙ্গ দিয়ে রাখলে কোনভাবেই পিঁপড়ে আপনাদের চিনির মধ্যে প্রবেশ করবে না।

৫) প্রেসার কুকারে যখন রান্না করা হয় তখন লক্ষ্য রাখবেন যে সিটি বেজে ওভেনের আশপাশ কিন্তু একেবারে নোংরা বা নষ্ট হয়ে গিয়ে থাকে। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আপনারা প্রেসার কুকারের রবারের মধ্যে যদি সামান্য তেল লাগিয়ে নিতে পারেন, তারপর যদি এই প্রেসার কুকার ব্যবহার করে রান্না করেন তাহলে কিন্তু আর সমস্যা হবে না। দেখবেন যতই সিটি পড়ুক না কেন কোনভাবেই কিন্তু আশপাশ নোংরা বা নষ্ট হয়ে যাবে না। যার ফলস্বরূপ আপনার বারবার করে পরিষ্কার করার দরকার নেই আর সময়ও অনেকটা সাশ্রয় হবে।

৬) আজকের এই প্রতিবেদনের সব শেষে আমরা যে টিপস শেয়ার করব সেটাও কিন্তু রান্নাঘরের জন্য অত্যন্ত কার্যকর একটি টিপস। সবজি গ্রেট করে নেওয়ার জন্য আমরা যে গ্রেটার ব্যবহার করে থাকি সেটার ধার কিন্তু অল্প কয়েকদিনের মধ্যেই দেখা যায় নষ্ট হয়ে যায়। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আপনারা একটি মগ নিয়ে নিতে পারেন উল্টো করে। তারপরে সেই মগের উপর গ্রেটারটিকে ভালো করে ঘষতে থাকলেই মোটামুটি দশকের মধ্যে কিন্তু তার পুরনো ধার ফেরত চলে আসবে। অবশ্যই বাড়িতে এই পদ্ধতি ট্রাই করে দেখবেন তাহলে কিন্তু আর সবজি গ্রেট করার সময় আপনাকে অতিরিক্ত সময় দিতে হবে না।

Back to top button