একদম হালকা ওজনের মধ্যে আধুনিক ডিজাইনের সোনার চেইনের রইলো ১০টি দুর্দান্ত কালেকশন

নিজস্ব প্রতিবেদন : সোনা এমন একটি জিনিস যা ভারতীয় বাজারে কিন্তু বিভিন্ন সময়ে কম-বেশি মানুষ খরিদ করে থাকেন। যদিও পূর্ববর্তী সময়ে সোনার চাহিদা কিন্তু প্রত্যেকটি বিয়ে বাড়ি এবং অনুষ্ঠানেই মহিলাদের মধ্যে দেখা যেত। কিন্তু বর্তমানে তা একেবারেই কমে গিয়েছে বলা যায়। মূল্য বৃদ্ধির কারণে আজকাল কিন্তু অনেকেই সোনার বিকল্প ধাতু হিসেবে সিটি গোল্ড বা অন্যান্য ব্যবহার করছেন।

তবে কম-বেশি বিভিন্ন বিয়ের সিজনে মধ্যবিত্ত সাধারণ মানুষের মধ্যে কিন্তু সোনা খরিদ করার তাগিদ দেখা যায়।। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আলোচনা করতে চলেছি কিভাবে আপনারা অল্প ওজনের মধ্যে সোনার বিভিন্ন সোনার চেইন তৈরি করে নিতে পারবেন। আসুন এই বিশেষ ডিজাইনগুলি জেনে নেওয়া যাক।

বিভিন্ন ডিজাইনের সোনার চেইনের কালেকশন :

১) আজকের এই প্রতিবেদনের শুরুতেই আপনাদেরকে যে সোনার চেনের কালেকশন টি দেখাবো সেটার ওজন মোটামুটি ১০ গ্রাম। এটির দাম পড়বে ৫৭,৭০০ টাকা। খুব সুন্দর একটা ডিজাইনার চেন। যে কোন অকেশনে কিন্তু আপনারা এটাকে পরিধান করতে পারবেন।

২) এবার যে কালেকশনটি আপনারা দেখছেন সেটা কিন্তু খুব সুন্দর একটা ডিজাইনার চেন। এটার ওজন পড়বে বারো গ্রামের সামান্য বেশি। এই কালেকশনটি তৈরি করতে গেলে আপনাদের মোটামুটি খরচ করতে হবে ৬৭৫০০ টাকা। ডিজাইনার চেন হলেও কিন্তু এটা এমন দেখতে যে আপনারা রেগুলার ইউজের জন্যও ব্যবহার করতে পারবেন।

৩) আমাদের প্রতিবেদনের তিন নম্বরে যে কালেকশনটি আপনাদের দেখাতে চলেছি সেটাও কিন্তু একটা ডিজাইনার চেন। মাঝখানে ছোট ছোট করে পিসের মতন কাজ করা রয়েছে। এটার ওজনও আছে ১২ গ্রামের থেকে সামান্য বেশি। মোটামুটি ৬৮ হাজার ২০০ টাকার মধ্যে আপনারা এটাকে তৈরি করে নিতে পারবেন।

৪) এবার যে চেনের কালেকশনটি আপনারা দেখছেন সেটার দৈর্ঘ্য সামান্য বেশি অর্থাৎ ২৪ ইঞ্চির মতন পড়বে। ওজন করছে ১৩ গ্রাম এর সামান্য বেশি। এই কালেকশনটি তৈরি করতে গেলে আপনাদের মোটামুটি ৭৬ হাজার ৫০০ টাকার সামান্য বেশি খরচ করতে হবে। এটার মধ্যে গোল ধরনের একটা ছোট ছোট ডিজাইনের কাজ করা রয়েছে।। রেগুলার ইউজের জন্য কিন্তু আপনারা এটাকে ব্যবহার করতে পারেন।

৫) এবার যে চেনের ডিজাইনটি আপনারা দেখতে চলেছেন সেটা কিন্তু অনেকে দড়ি চেন বলে উল্লেখ করে থাকে। ১৫ গ্রামের থেকে সামান্য বেশি রয়েছে এটার ওজন। মোটামুটি ৮৮ হাজার ৫০০ টাকার মধ্যে আপনারা এই কালেকশনটা কিন্তু পেয়ে যাবেন। প্রত্যেকটা চেন কিন্তু ২২ ক্যারেট হলমার্ক যুক্ত।

৬) এবার যে কালেকশনটি আপনারা দেখতে পাচ্ছেন সেটা কিন্তু মহিলারা বিভিন্ন পূজা-পার্বণ বা অকেশনে সহজেই ব্যবহার করতে পারবেন। অসাধারণ একটা আধুনিক ডিজাইনের কালেকশন বলা যেতে পারে এটাকে। এটা তৈরি করতে আপনাদের খরচ পড়বে মোটামুটি 94 হাজার 500 টাকার কাছাকাছি।

৭) এবার যে চ্যানেল কালেকশনটি আপনারা দেখছেন সেটার ওজন কিন্তু অনেকটাই বেশি প্রায় 18 গ্রাম। অসাধারণ গোল ডিজাইনের মধ্যে এই কাজটি তৈরি করা হয়েছে। ১ লক্ষ ২ হাজার ২০০ টাকার কাছাকাছি এটার দাম পড়বে। ভীষণ চওড়া এই চেনের কালেকশনটি কিন্তু পুরুষ মহিলা নির্বিশেষে সকলেই পরিধান করতে পারবেন। তবে মূলত কম বয়সী ছেলে মেয়েদের গলাতেই এই কালেকশনটা বেশি ভালো লাগবে।

৮) যারা একটু সিম্পল এর মধ্যে ভারী ডিজাইন খুঁজছেন তারা কিন্তু অবশ্যই সোনার চেইনের এই কালেকশন টি ট্রাই করে দেখতে পারেন। এটাতে অনেকটা বক্সের মতন করে ডিজাইন করা রয়েছে।। মেকিং চার্জ এবং জিএসটি সহ এই কালেকশনটির দাম পড়বে ১ লক্ষ ১০ হাজার ৯০০ টাকা।

৯) এবার যে চেনের কালেকশনটি আপনারা দেখছেন সেটা কিন্তু সাধারণ চেনের থেকে অনেকটাই ভারী। মোটামুটি ২৩ গ্রাম ওজনের মধ্যে ছোট ছোট গোল ডিজাইন করা রয়েছে। দাম পড়বে ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকার সামান্য বেশি।

১০) এবার চলে আসা যাক আমাদের আজকের এই প্রতিবেদনের শেষ কালেকশনে। বেশ চওড়া এবং দৈর্ঘ্যের দিক থেকে লম্বা এই চেনটির ওজন থাকছে ছাব্বিশ গ্রাম। খুবই সুন্দর একটা ক্রিসক্রস ডিজাইনের এই চ্যানেলটির দাম পড়বে মোটামুটি ১ লক্ষ ৪০ হাজার টাকার কিছু বেশি। পুজো পার্বন বা যেকোনো অকেশনে সহজেই কিন্তু মহিলারা পরিধান করতে পারবেন।

Back to top button