টলিউডের বাদশা তিনি! পড়াশোনাতে কেমন ছিলেন বুম্বা দা? সামনে এলো প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের মাধ্যমিকের রেজাল্ট!

নিজস্ব প্রতিবেদন : টলিউড জগতের প্রথম সারির অভিনেতাদের মধ্যে রয়েছেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। বাংলা চলচ্চিত্র জগতকে একের পর এক সুপারহিট ছবি উপহার দিয়েছেন প্রসেনজিৎ। দীর্ঘ সময়ের এই অভিনয় জীবনে তার অনুরাগী সংখ্যা কিন্তু একেবারেই কম নয়। একশোর বেশি ছবিতে তিনি অভিনয় করেছেন। তবে অভিনয় দক্ষতা যাই থাকুক না কেন আপনারা কি জানেন আসলে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের শিক্ষাগত যোগ্যতা কি? পাশাপাশি পড়াশোনা তে ঠিক কেমন ছিলেন প্রসেনজিৎ ওরফে বুম্বাদা! আজকের এই বিষয়টি নিয়েই আমাদের বিশেষ প্রতিবেদন। চলুন আর দেরি না করে এই বিশেষ প্রতিবেদনটি জেনে নেওয়া যাক।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য ১৯৬৮ সালে বাবার হাত ধরেই প্রথমবার অভিনয় জগতে পদার্পণ করেছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।তখন শিশুশিল্পী হিসাবেই অভিনয় করেছিলেন বাবা বিশ্বজিৎ চট্টোপাধ্যায় পরিচালিত ছবি ‘ছোট্ট জিজ্ঞাসা’তে। এরপর নায়ক হিসাবে প্রথম ছবি করেন ১৯৮৩ সালে, ছবির নাম ছিল ‘দুটি পাতা’। তারপর কিন্তু আর তাকে পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। টলিউড ইন্ডাস্ট্রিকে একের পর এক সুপারহিট ছবি উপহার দিয়েছেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।অভিনয়ের জন্য নিজের সবটুকুই দিয়েছিলেন তিনি, বদলে জনপ্রিয়তাও পেয়েছিলেন বিপুল। তখনকার সময়ে অনেক সাধারণ যুবকদের কাছে রোল মডেল ছিলেন প্রসেনজিৎ।

তার অভিনয়ে জীবন নিয়ে কোনো রকম প্রশ্ন তোলা চলে না বলাই যায়। তবে বাস্তব জীবনের পড়াশোনায় ঠিক কেমন ছিলেন এই অভিনেতা? আজকের আমাদের এই প্রতিবেদনের প্রধান আলোচ্য বিষয়বস্তু কিন্তু এটি।কিছুদিন আগে রানী রাসমণি অভিনেত্রী দিতিপ্রিয়ার সাথে ‘আয় খুকু আয়’ ছবি রিলিজ হয়েছিল। সেই সময় ছবির প্রচার চলাকালীন নিজের মাধ্যমিকের রেজাল্ট নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। আর সেই ভিডিও মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে উঠেছিল নেট দুনিয়ায়। শুধুমাত্র পড়াশুনা নিয়ে নয় নিজের ছোটবেলাকার অনেক পুরনো ঘটনার স্মৃতিচারণ করেছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।

প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ওরফে বুম্বাদা সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে জানিয়েছিলেন মাধ্যমিকে ৬০ শতাংশের বেশি নম্বর পেয়েছিলেন তিনি। অর্থাৎ পড়াশুনাতে কিন্তু তিনি খুব একটা খারাপ ছিলেন না। চাইলেই হয়তো তিনি অন্য কোন রাস্তা বেছে নিতে পারতেন। তবে অভিনয় কে ভালোবেসে এই পথে এগিয়েই সফলতা লাভ করতে চেয়েছিলেন প্রসেনজিৎ। আর ভাগ্য তার এতটাই সহায়ক হয়েছিল যে আর তাকে কোনদিনও পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি।

Back to top button