নিউজ

মাসে ১৫ হাজারের থেকেও কম উপার্জনকারীদের জন্য বিরাট সুখবর, মিলবে ৩০০০ টাকা করে প্রতিমাসে!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-
আমাদের দেশে চাকরিজীবীরা সাধারণত খুব অল্প পরিমাণ টাকা উপার্জন করে । অর্থাৎ স্বল্প পরিমাণ উপার্জনকারীর সংখ্যায় দেশে বেশি । তাদের মধ্যে আবার অনেকেই আছেন যাদের মাসিক আয় ১৫ হাজার বা তার নিচে । এমতাবস্থায় অবসর নেওয়ার পর সেই ১৫,০০০ থেকে পেনশন নিয়ে বাকী জীবন সংসার চালানোর রীতিমতো দুঃসাধ্য ব্যাপার।

তারপর বর্তমান যা পরিস্থিতি যেখানে দিন দিন বেড়ে চলেছে বাজারদর পেট্রোল ডিজেল রান্নার গ্যাসের দাম সেখানে কয়েকটি টাকায় পেনশন সংসার চালানো মোটেও সম্ভব নয় । কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারের একটি বিশেষ পেনশন স্কিম লাগু করা হয়েছে যেখানে মিলবে সেইসব মানুষদের সহায়তা ।

দেশের এই আর্থিক পরিস্থিতিতে সরকার কর্তৃক বিভিন্ন সময় নতুন নতুন নিয়ম চালু করা হয়েছে যাতে নিত্যদিনের সাধারণ মানুষের কোন অসুবিধা না হয়। সেই মতো সরকার ফের আরও একবার সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে নিয়ে এলো এই পেনশন স্কিম । এই প্রকল্পের নাম প্রধানমন্ত্রী-এসওয়াইএম স্কিম (প্রধানমন্ত্রী শ্রম যোগী মন-ধন যোজনা)। ১৮ থেকে ৪০ বছরের যে কেউ এই স্কিমে নিজের নাম অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন।

এই পেনশন স্কিম এ নিজেকে তালিকাভুক্ত করার জন্য বেশ কয়েকটি আবেদন পদ্ধতি রয়েছে যা এই মুহূর্তে আপনাদের সামনে তুলে ধরতে চলেছি । এর জন্য একটি অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে এবং একাউন্ট খোলার জন্য আপনাকে বাড়ির কাছের কোনও কমন সার্ভিস সেন্টারে যেতে হবে। সেটা না থাকলে এটি এলআইসি বা শ্রম মন্ত্রকের ওয়েবসাইটে গিয়ে দেখতে হবে। এছাড়া এলআইসি অফিস থেকেও এই অ্যাকাউন্ট খোলা যেতে পারে।

এই প্রকল্পের আওতায় আসতে গেলে আপনার বয়স অবশ্যই ১৮ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে হতে হবে এবং বার্ষিক মাসিক আয় ১৫ হাজার বা তার নিচে হতে হবে তাহলেই মিলবে এই সুবিধা । এই প্রকল্পের আওতায় সর্বনিম্ন ৩ হাজার টাকা পর্যন্ত মাসিক পেনশন পাওয়ার সুবিধা রয়েছে ।

কর্মক্ষেত্র থেকে অবসর নেওয়ার পর অর্থাৎ ৬০ বছর বয়সের পর চালু হবে এই পেনশন প্রক্রিয়া । এবং মাসিক সর্বাধিক তিন হাজার টাকা পর্যন্ত পাবেন টাকা। তবে আপনি যদি আপনার মাসিক আয় থেকে বেশি পরিমাণ টাকা জমা দেন তাহলে মিলবে বেশি পরিমাণে পেনশন। এই ধরনের প্রকল্প সাধারণ মানুষকে অনেকটা চিন্তা থেকে মুক্তি দিয়েছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button