একদম স্বল্প পুঁজিতে বর্তমান সময়ের জন্য দুর্দান্ত ব্যাবসার আইডিয়া, রইলো বিস্তারিত

নিজস্ব প্রতিবেদন : অর্থ উপার্জনের জন্য বর্তমান সময়ে মানুষ কিন্তু নানান ধরনের বিকল্প পদ্ধতির সন্ধান চালানোর চেষ্টা করছেন ক্রমাগত। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই যে কোন মানুষ কিন্তু চাকরি-বাকরি ছেড়ে ব্যবসা-বাণিজ্যের দিকেই ঝুঁকছেন। তবে ব্যবসা শুরু করতে গিয়ে কিন্তু বেশ কয়েকটি জিনিস নিয়ে আমাদেরকে অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয়।যারা নতুন ব্যবসা শুরু করছেন তারা কিন্তু বুঝতে পারেন না ঠিক কি ধরনের বিজনেস শুরু করলে তা অত্যন্ত লাভজনক হবে!

প্রথমত, ব্যবসা করার সময় আমাদেরকে মূলধন এবং অন্যান্য বিষয় নিয়ে খেয়াল রাখতে হয়। পাশাপাশি ঠিক কি ধরনের ব্যবসা করলে কখনো চাহিদার অভাব হবে না সেই দিকেও কিন্তু আমাদেরকে নজর দিতে হয়। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা নন ওভেন ব্যাগ তৈরির ব্যবসা সম্পর্কে আপনাদের সাথে আলোচনা করতে চলেছি। তাহলে আসুন আর দেরি না করে শুরু করা যাক আমাদের এই বিশেষ প্রতিবেদন। বিস্তারিত জানতে হলে আপনারা কিন্তু আমাদের আজকের এই প্রতিবেদনটি একেবারে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ে সঙ্গে থাকা ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন।

কিভাবে এই ব্যবসা শুরু করবেন ?

যারা নতুন ব্যবসা শুরু করতে চাইছেন অল্প মূলধনের মধ্যে তাদের জন্য কিন্তু এই ব্যবসাটি অত্যন্ত লাভজনক। যেকোনো দোকান বাজার থেকে শুরু করে রেস্টুরেন্ট সব জায়গাতেই নন ওভেন ব্যাগের চাহিদা রয়েছে। আজকাল সরকারি-নিষেধের কারণে প্লাস্টিক বা পলিথিন কিন্তু একেবারে নিষেধ হয়ে গিয়েছে। তার জায়গা নিয়েছে বিভিন্ন ধরনের কাপড়ের ব্যাগ।

আপনারা কিন্তু চাইলেই এই ব্যাগ তৈরির ব্যবসা শুরু করতে পারেন সহজেই। তবে তার জন্য আপনাদের অবশ্যই সঠিক পদ্ধতি বেছে নিতে হবে এবং সেই অনুযায়ী কাজ করতে হবে। মেশিন কেনার টাকা বাদ দিলে আপনারা মোটামুটি ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা মূলধন নিয়েই এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। তবে প্রথমেই কিন্তু স্থানীয় বাজার আপনাদেরকে ভালো করে ধরে নিতে হবে যাতে আপনারা এই নন ওভেন ব্যাগ সহজেই বাজারজাত করতে পারেন।।

নন ওভেন বা কাপড়ের ব্যাগের দিন প্রতিদিন ক্রমবর্ধমান চাহিদা:

প্লাস্টিক বা পলিথিন এর ব্যাগের ব্যবহার বন্ধ করে দেওয়ার জন্য বর্তমানে নন ওভেন ব্যাগের চাহিদা যেন বেড়েই চলেছে। সুতরাং এই ব্যবসা শুরু করার পর আপনারা অল্প সময়ের মধ্যেই লাভবান হতে পারবেন তাতে কোন সন্দেহ নেই। তবে অবশ্যই ব্যবসা শুরু করার আগে আপনাদেরকে প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করে নিতে হবে যাতে ভবিষ্যতে কোন রকমের সমস্যা না হয়।

এই ব্যাগ আপনারা মোটামুটি ৫ টাকার মধ্যে তৈরি করে নিয়ে প্রায় কুড়ি টাকা দামে বিক্রয় করতে পারবেন। তবে অবশ্যই আপনাদের উৎপাদিত পণ্যের পরিমাণ কিন্তু দিন প্রতিদিন বাড়াতেই থাকতে হবে। এই ব্যবসা দাঁড়িয়ে গেলে আপনাদের আর কখনোই চিন্তা করতে হবে না।

কোথা থেকে মেশিন কিনবেন এবং কিভাবে?

নন ওভেন ব্যাগ তৈরি করতে লাগে অটোমেটিক মেশিন, সেমি অটোমেটিক মেশিন, পাঞ্চিং মেশিন, কালার প্রিন্টার মেশিন। তবে মূলত দুই ধরনের মেশিন হলেই আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। সেমি অটোমেটিক মেশিন এবং পাঞ্চিং মেশিন। মেশিন কেনার জন্য অথবা ব্যবসা শুরু করতে আগ্রহী থাকলে আমরা আপনাদের যে ঠিকানা দিয়ে দিচ্ছি সেখানে কিন্তু সহজেই যোগাযোগ করে নিতে পারেন।

মেশিন কেনার জন্য আপনাদের মধ্যমগ্রামের সোদপুর রোডে অবস্থিত রয়েল মেশিনারির সাথে কথা বলতে হবে। এই ফ্যাক্টরি টি মধ্যমগ্রামের সোদপুর রোডের লোকনাথ মন্দিরের বিপরীতে জুগবেরিয়াতে অবস্থিত। যদি আপনারা দূরবর্তী কোনো স্থান থেকে এখানে যোগাযোগ করে থাকেন বা বিস্তারিত কোন তথ্য জানতে চান সে ক্ষেত্রে 8981332777 অথবা 6289985600 এই দুটি নম্বরে ফোন করে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করে নিতে পারেন।

Back to top button