নিউজ

গরিব মানুষদের জন্য ক্যান্টিনের পর এবার পুজোর জামা কাপড়, পুজোয় গরিবদের ‘কাস্তে হাতুড়ি তারা’ চিহ্নময়ী জামাকাপড় দিচ্ছে সিপিএম!

নিজস্ব সংবাদদাতা: দুর্গাপূজা চলে এলো বলে।আর মাত্র কয়েকদিনের মধ্যে শুরু হতে চলেছে বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গোৎসব। তবে এ বছর মহামারী করোনা এবং লকডাউন এর কারণে উৎসবের আনন্দে আমেজ অনেকখানি ফিকে। অনেকের কাছে নিত্যদিনের খাবার চালানোর মতো হয়তো পয়সাও নেই। সেখানে দাঁড়িয়ে পুজোর আনন্দ করা ভীষণ বিলাসিতা।

তবে এবার পুজোয় এক নতুন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে রাজ্য সিপিএম এর পক্ষ থেকে। শ্রমজীবী ক্যান্টিনের পর তারা তৈরি করতে চলেছেন শ্রমজীবী বাজার। লকডাউন এর সময় থেকেই ভীষণ ভাবে সফল সিপিএম পার্টি দ্বারা পরিচালিত শ্রমজীবী ক্যান্টিন।সমাজের নিম্ন আয়ের লোকদের জন্য তৈরি হয়েছিল এই শ্রমজীবী ক্যান্টিন। সেখানে তারা সামান্য অর্থ পেট ভরানোর সুযোগ পাচ্ছে। এবার সেই প্রচেষ্টা সফল হওয়ার পরেই আরো একধাপ এগিয়ে গিয়ে শ্রমজীবী বাজার তৈরি করবে সিপিএম।

লকডাউনের দীর্ঘ সাত মাস ধরে অনেকেই রুজিরুটি বন্ধ। তারা যেতে পারছেন না তাদের দৈনন্দিন কাজে। বর্তমানে লকডাউন উঠে গেলেও এই দীর্ঘ সাত মাসের যে ক্ষতি সেটা পূরণ করে ওঠা খুব মুশকিল। সেই কথা ভেবে যতদূর সম্ভব মানুষদের পাশে থাকার চেষ্টা করছে তারা।আগামী বছরেই রাজ্যের শাসকের ভাগ্য নির্ধারণ, বিধানসভা ভোট। তার আগে জনসংযোগ মজবুত করতে, বিভিন্ন প্রচেষ্টায় মানুষের পাশে থাকতে চাইছে সিপিএম।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে অনেক দুস্থ মানুষজনকে জামাকাপড় বণ্টন করেছে সিপিএম। রবিবার বেহালার ১২১ নম্বর ওয়ার্ডে পুজোর নতুন জামাকাপড় তুলে দেওয়া হবে গরিবদের মধ্যেএই নিয়ে সিপিএম নেতৃত্বের বক্তব্য,”অন্যান্য দল যখন মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে ঝগড়া করতে ব্যস্ত, সেই সময় মানুষের পাশে কেবল বামেরাই দাঁড়াচ্ছে। বামেরা সবসময় গরিব খেটে খাওয়া মানুষের স্বার্থেই কাজ করে থাকে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button