‘অনেক খেয়েছেন, আবার খাবেন, ৬ মাস খাওয়া বন্ধ রাখুন’, দলীয় সভায় বললেন তৃনমুল বিধায়ক উদয়ন গুহ!

‘অনেক খেয়েছেন, আবার খাবেন, ৬ মাস খাওয়া বন্ধ রাখুন’, দলীয় সভায় বললেন তৃনমুল বিধায়ক উদয়ন গুহ!

নিজস্ব প্রতিবেদন –
আর মাত্র হাতে গোনা কয়েকটা মাস । তারপর এই শুরু হবে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই । সামনে বিধানসভা ভোট কে মাথায় রেখে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলির প্রস্তুতি ইতিমধ্যে নজরে পড়ার মতন। বিনা যুদ্ধে এক ইঞ্চিও জমি ছাড়তে নারাজ কোন দলই ।এই মুহূর্তে সবাই মানুষের কাছে তুলে ধরতে চাইছেন যে তাদের বিরোধী দলের কি কি খামতি থেকেছে। এর পাশাপাশি বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা মন্ত্রীরা পৌঁছেছেন মানুষের দোরগোড়ায়। জানতে চাইছেন তাদের অসুবিধা ।সামনে বিধানসভা ভোট কি লক্ষ্য রেখেই বিভিন্ন দলের সভা ইতিমধ্যে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সেরকমই কোচবিহারে নগর নিগম হাই স্কুলের মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছিল একটি সভা।

যেখানে বেফাঁস মন্তব্য করে বসেন দিনহাটার তৃণমূল বিধায়ক উদয়ন গুহ।আমরা দেখেছি বেশ কিছুদিন আগে স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী কাটমানির বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন তিনি বলেছিলেন সরকারি সাহায্য পাওয়া গরিব মানুষের অধিকার সে অধিকার পেতে গেলে যদি কেউ টাকার গল্প বলে তাহলে তার বিরুদ্ধে সরাসরি পুলিশের কাছে অভিযোগ করুন। পুলিশকে এর ব্যবস্থা নেবে । কিন্তু তারই দলের এক কর্মী প্রকাশ্যে করে বসলেন এমন এক মন্তব্য যাকে ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক।সাংবাদিকদের হাতে একটি ভিডিও ফুটেজ আসে সে দিনের কর্মসূচির । তবে এই ফুটেজ এর সত্যতা বিচার করেনি আমাদের নিউজ পোর্টাল ।

সেই ফুটেজের বিধায়ক উদয়ন গুহকে বলতে শোনা যাচ্ছে যে ” গত লোকসভা ভোটে আমরা হেরেছিলাম, কারণ আমাদের নেতা-কর্মীরা মানুষের খাবার কেড়ে নিয়েছিল। তার জন্য আমিও কিছুটা দায়ী। কিন্তু একুশের বিধানসভায় জিততে গেলে মানুষের খাবার কেড়ে নিলে চলবে না”। আমি সব প্রধান-পঞ্চায়েতদের বলব, অনেক খেয়েছেন। ভবিষ্যতে আরও খাবেন। কিন্তু এখন ৬ মাস যদি না খান, মানুষের খাবার মানুষকে দেন, তা হলে পরবর্তী কালে আবার খাবার সুযোগ পাবেন। কিন্তু এখন যদি খান। তাহলে মানুষ আর পরবর্তীকালে খাবার সুযোগ দেবে না”।এই প্রসঙ্গে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী বলেছেন যে” কী অসাধারণ স্বীকারোক্তি।

শাসক দলের বিধায়কই স্বীকার করে নিচ্ছেন তাঁদের দল লুটে পুটে খেয়েছে। ফের ক্ষমতায় এলে আবার লুটে পুটে খাবে। বাংলার সব মানুষের এ কথা জানা উচিত”। । তবে থেমে থাকেনি সিপিএম । বাম পরিষদ পরিষদ নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন যে “তৃণমূল যে মানুষের খাবার কেড়ে নিয়েছে সে কথা সবাই জানে।  নতুন হল, উদয়ন সেটা খোলাখুলি স্বীকার করেছেন। তবে এর থেকেও মারাত্মক কথা উনি বলেছেন, যা শুনে বাংলার মানুষের ভয় পাওয়া উচিত। তা হল, ক্ষমতায় এলে ওরা ফের মানুষের খাবার কেড়ে নেবে। আবারও খাবে। এ কথা ভয়ঙ্কর!”তবে এ ব্যাপারে চুপ থাকেন এই বিজেপি ও স্থানীয় বিজেপি বিধায়কের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে আগের 10 বছরের হিসেব নিকেশ করা হোক তারপরে দেখব ।

,