রুটি-পরোটার সাথে খাওয়ার জন্য খুব সহজেই বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের ‘ আলু মরিচ ‘ রেসিপি, রইলো স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি।

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভরা এই বর্ষার দিনে দুপুরে খিচুড়ি আর রাতে লুচি হলে একেবারে জমে যায় কি বলুন? কিন্তু লুচি মানেই তো সাথে দরকার দুর্দান্ত কিছু চটপটা রেসিপি। আজ আপনাদের শেখাবো খুব অল্প সময়ে ও সহজ পদ্ধতিতে কিভাবে ঘি দিয়ে আলু-মরিচ বানিয়ে ফেলতে পারবেন।

উপোস করলে, মুখে অরুচি থাকলে কিংবা হঠাৎ অন্য কিছু খাওয়ার ইচ্ছা হলেও খেতে পারবেন এই দুর্দান্ত সুন্দর নিরামিষ খাবারটি। রাতে রুটি ও পরোটার সঙ্গে খাওয়ার জন্যও বানাতে পারেন এটি। তাহলে চলুন আর সময় নষ্ট না করে দেখে নিন কিভাবে বানাবেন এই আলু-মরিচ।

উপকরণঃ

আলু, ঘি, নুন, গোলমরিচ গুঁড়ো, কালো জিরে, শুকনো লঙ্কা, কাঁচা লঙ্কা, জিরে গুঁড়ো,

প্রথমে কড়াইতে জল নিয়ে কেটে রাখা আলু সেদ্ধ করে নিন। তার মধ্যে দেবেন সামান্য পরিমান লবন। মিনিট পাঁচেক পরে আলু অর্ধেক সেদ্ধ হয়ে গেলে গ্যাস বন্ধ করে আলু থেকে জল ঝরিয়ে নিন। এবার একটি কড়াই নিয়ে তার মধ্যে প্রথমে নিয়ে নিন ঘি। যেহেতু এই রেসিপিটির সাথে ঘি জড়িয়ে আছে তাই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কিন্তু এই ঘি। কড়াইতে ঘি নিয়ে অল্প আঁচে খুব ভালো করে গরম করে দিন।

এবার অর্ধেক চামচ কালো জিরে ও দুটি শুকনো লঙ্কা দিয়ে দিন ঘিয়ের মধ্যে। ভালো করে এই দুটি জিনিস নেড়ে নেবেন। ঘি খুব তাড়াতাড়ি পুড়ে যায় তাই আঁচ যত কম রাখবেন ভালো হবে। এবার সেদ্ধ করা আলু কড়াইতে দিয়ে দিন। ৩-৪ মিনিট ঢাকা দিয়ে ছেড়ে দিন। এর ফলে ঘিয়ের যে সুন্দর গন্ধ তা সম্পূর্ণ আলুর মধ্যে চলে যাবে। এবার স্বাদ মতো নুন ও চিরে রাখা কাঁচা লঙ্কা দিতে পারেন। তবে অধিক ঝাল যারা খান না তাদের এড়িয়ে যাওয়াই ভালো।

পরে অর্ধেক চামচ ভাজা জিরের গুঁড়ো ও এক চামচ গোল মরিচের গুঁড়ো দিয়ে দেবেন। গোলমরিচের গুঁড়ো কিন্তু এই আলু-মরিচ রেসিপির অন্যতম উপাদান। মিনিট দুয়েক সম্পূর্ণ ঢাকা দিয়ে রেখে গ্যাস বন্ধ করে দিন। এবার একদম খাওয়ার জন্য উপযোগী আপনার ঘি দিয়ে তৈরী আলু মরিচ রেসিপি। গরম লুচি, পরোটা কিংবা রুটির সাথেও খেতে পারবেন। তবে এই বৃষ্টির দিনে গরম লুচির সাথে এই আলু মরিচ একদম জমে যাবে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button