Connect with us

নিউজ

জন্ম থেকেই কানে শোনেন না, সাথে বোবা! তবুও দারুন কায়দায় তবলায় বোল তুলতে কখনো ভুল হয় না দুর্গাপুরের প্রকাশের!

নিজস্ব প্রতিবেদন:সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে খুব সহজেই মানুষের নানান ধরনের প্রতিভা আমাদের চোখের সামনে ফুটে ওঠে।পূর্ববর্তী সময়ে সাধারণত এইসব প্রতিভার বিকাশ ঘটানোর জন্য আমাদের টেলিভিশন কিংবা রেডিওর উপর নির্ভর করে থাকতে হতো।কিন্তু আজকাল নেটওয়ার্ক মাধ্যম এতটাই সক্রিয় হয়ে পড়েছে যে খুব সহজেই নানান ধরনের ভাইরাল ভিডিও মাধ্যমে মানুষের কাছে সব জিনিস ছড়িয়ে পড়ে।

আট থেকে আশি সকলেই এখন নেট মাধ্যমের বাসিন্দা। দিন কয়েক আগেই আমরা একটি ফেসবুক পেজ থেকে ভিডিও ভাইরাল হতে দেখেছিলাম।ভাইরাল সেই ভিডিওতে একজন মা ও মেয়েকে খালি গলায় কোন রকম বাদ্যযন্ত্র ছাড়া গান করতে দেখা যাচ্ছিল। তাদের গান শুনে রীতিমত অবাক হয়ে গিয়েছিলেন শ্রোতারা।

সম্প্রতি আবারও ঠিক একই ধরনের একটি ভিডিও আমরা ইন্টারনেট দুনিয়ায় দেখতে পেয়েছি। ভাইরাল এই ভিডিওতে
আমরা দুর্গাপুরের বাসিন্দা প্রকাশ রুইদাসের কথা জানতে পারছি। প্রসঙ্গত 45 বছর বয়সী এই ব্যক্তি ছোট থেকেই মূক বধির। স্টেশন বাজারে তার একটি বাদ্যযন্ত্রের দোকান রয়েছে।

বাদ্যযন্ত্র সারানো থেকে শুরু করে তা সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করা সমস্ত কাজ করে থাকেন প্রকাশ। নিজের বাবার থেকে এই কাজ শিখেছিলেন তিনি। গত 4 বছর আগে তার মা বার্ধক্য জনিত সমস্যার কারণে মারা যায়। শুধুমাত্র প্রকাশ নয় তার বোন ববি রুইদাস ও একজন মূক ও বধির।

তবে আশ্চর্যের বিষয় কানে শুনতে না পারলেও প্রকাশ এক বিশেষ ধরনের প্রতিভার অধিকারী। ছোটবেলা থেকেই তিনি কানে শুনতে না পারলেও তবলার বোল বুঝতে বা সমস্যা অনুভব করতে তার কোনো রকমের অসুবিধা হয় না। রীতিমতো দক্ষতার সাথে বাদ্যযন্ত্র সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করে থাকেন তিনি।

বলতে গেলে তার সারাটা দিন তবলা নিয়েই কেটে যায়। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা প্রকাশ দাসের এই আশ্চর্য প্রতিভার কথা জানতে পেরেছি। তাই অবশ্যই আমাদের দিনশেষে একবার হলেও সোশ্যাল মিডিয়াকে কুর্নিশ জানানো উচিত। একবার সময় করে সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল প্রকাশ দাসের এই ভিডিওটি দেখতে ভুলবেন না।

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Trending