অফবিটনিউজভিডিও

পুজোর আগে পার্লারে না গিয়ে সহজে ও কম খরচে বাড়িতেই করে ফেলুন চুলের ব্রাউন কালার!

নিজস্ব সংবাদদাতা: যেহেতু হেনা এবং কফি উভয়েরই রং করার বৈশিষ্ট্য রয়েছে, সেগুলির সংমিশ্রণের ফলে এই দুটো উপাদান মিশিয়ে সহজেই বাদামি বর্ণের চুল পেতে পারেন। প্রয়োজনীয় উপাদান:- হেনা গুঁড়ো – 5 টেবিল চামচ বা প্রয়োজনীয় হিসাবে (আপনার চুলের দৈর্ঘ্যের উপর নির্ভর করে)
কফি (ডিহাইড্রেটেড) – ১ টেবিল চামচ বা প্রয়োজন হিসাবে (গাঢ় রঙ পাওয়ার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে 2 বড় চামচ পরিমান) জল – 1 কাপ
একটি মাঝারি আকারের কাচের মিক্সিং বাটি একটি ছোট পাত্র এক চামচ একটি শাওয়ার ক্যাপ / প্লাস্টিকের ক্যাপ দুটি পরিষ্কার তোয়ালে

প্রস্তুতি এবং প্রয়োগ:- কফি প্রস্তুত দিয়ে শুরু করুন। পাত্রে জল ঢেলে দিয়ে ওভেন চালু করুন। এবার জল ফোটান। জল ফু-ট-তে শুরু করলে কফি যোগ করুন। হয়ে গেলে, পাত্রটি আঁচ থেকে বের করে একপাশে রেখে দিন।

অন্য একটি বাটিতে আপনি হেনা পাউডার নিন। সেখানে আস্তে আস্তে করে সামান্য পরিমাণ কফির মিশ্রণটি মেশান এবং না-ড়াতে থাকুন।ধীরে ধীরে নিশাতের সাথে সম্পূর্ণ কফির মিশ্রণটি দিয়ে দিন।

এই মিশ্রণটি বানানোর পর সাথে সাথেই ব্যবহার করবেন না। এটি আপনি প্লাস্টিক দিয়ে ভালো করে মুড়িয়ে কোন জায়গায় রেখে দিন, যাতে হাওয়া না ঢুকতে পারে। পাঁচ-ছয় ঘণ্টা রেখে দিন তারপরে ব্যবহার করুন। সব থেকে ভালো হয় যদি এক রাত রেখে দিতে পারেন।

তারপর ধীরে ধীরে এই মিশ্রণটি আপনার চুলের সর্বত্র লাগিয়ে নিন। সব জায়গায় সুষম ভাবে লাগানোর চেষ্টা করবেন। খেয়াল রাখবেন যেন আপনার চুলে কোনরকম তেল না থাকে, তাহলে আপনার রং ভালো হবে। তেল থাকলে রং হবে না।

এরপর আপনার সমস্ত চুল মোড়কের সাথে মুড়িয়ে ফেলুন বা কেবল প্লাস্টিক বা শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে মুড়িয়ে রাখুন। এছাড়াও, একটি গামছা চারদিকে ভালোভাবে জড়িয়ে রাখুন। এটি আপনার রঞ্জককে উ-ষ্ণ রাখবে, ডিহাইড্রেশন থেকে রো-ধ করবে এবং এর অক্সিজেনেশন এড়াবে।

3 থেকে 4 ঘন্টা পরে, আপনার চুল ধুয়ে ফেলুন। সেদিনই শ্যাম্পু করবেন না। সবথেকে ভালো হবে যদি পরের দিন শ্যাম্পু এবং হালকা কন্ডিশনার দিয়ে ধুয়ে ফেলতে পারেন। ধোয়ার পর বাতাসে শু-কিয়ে নিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button