সারাবছর টবেই খুব সহজ এই ঘরোয়া উপায়ে করুন ধনেপাতার চাষ, ফলনও হবে প্রচুর

নিজস্ব প্রতিবেদন: গরমকাল হোক বা শীতকাল সব সময়তেই কিন্তু ধনেপাতার চাহিদার লক্ষ্য করা যায়। মাটি ছাড়া বাড়িতে ধনেপাতা চাষ করা কিন্তু বিশেষ কিছু পদ্ধতি রয়েছে। তার মধ্যে অত্যন্ত বেশি রকমের উল্লেখযোগ্য হাইড্রোপোনিক কালটিভেশন পদ্ধতি। অনেকেই কিন্তু এই পদ্ধতি সম্পর্কে বিশেষ কিছু জানেন না। আজকের এই প্রতিবেদনে আমরা তা নিয়েই বিস্তারিত আলোচনা করতে চলেছি। চলুন আর সময় নষ্ট না করে চলে যাওয়া যাক প্রতিবেদনের মূল পর্বে।

হাইড্রোপনিক কালটিভেশন পদ্ধতিতে ধনেপাতা চাষ:

প্রথমেই আপনাদের ধনেপাতা চাষ করার জন্য ভালো বীজ সংগ্রহ করে নিতে হবে। যেকোনো নার্সারি থেকেই কিন্তু আপনারা এটা পেয়ে যাবেন। এরপর হালকা হাতে আপনাদের বীজগুলিকে প্রেস করে নিতে হবে। যাতে এটা কিছুটা বিভক্ত হয়ে যায়। তবে বীজ কিন্তু পুরোপুরি থেঁতো করে দেবেন না। বীজ রেডি হয়ে গেলে আপনাদের একটি আলাদা পাত্র নিয়ে নিতে হবে। এবার সেই পাত্রে কিছুটা পরিমাণ জল ভরে দিন। এবার এর উপরে আপনাদের একটি বড় ঝুড়ি নিয়ে নিতে হবে। এবার যে বীজ গুলিকে আপনারা বিভক্ত করে রেখেছিলেন সেটাকে এই ঝুড়ির উপরে চারদিক করে ছড়িয়ে দিন।

এবার পাত্রের মধ্যে আপনাকে আরো কিছুটা জল দিয়ে দিতে হবে যাতে বীজ মোটামুটি জলের সংস্পর্শেই থাকে। তবে একদিনে কিন্তু সম্পূর্ণ বীজ আপনারা দেবেন না মোটামুটি দুই দিন ধরে আপনাদের এই ঝুড়িতে বীজ দিতে হবে। এবার আপনাদের ঝুড়িসহ জলের পাত্রটি কে এমন জায়গায় রাখতে হবে যেখানে ভালো আলো প্রবেশ করে থাকে। তবে খুব বেশি কড়া রোদে যেন এটা না থাকে।

মোটামুটি ৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যেই কিন্তু ধীরে ধীরে বীজ থেকে চারা বেরোতে শুরু করবে। বীজ মশ্চারাইজ রাখার জন্য আপনারা এর উপরে টিস্যু পেপার দিয়ে দিতে পারেন ভিজিয়ে। তবে চারা বেরোতে শুরু করলে অবশ্যই এই টিস্যু পেপার সরিয়ে দেবেন। সঠিক পরিচর্যা থাকলে মোটামুটি ২৫ দিনের মধ্যেই কিন্তু বীজ থেকে বেশ ভালো রকম ভাবে ধনেপাতা বেরোতে শুরু করবে। প্রয়োজন অনুযায়ী কিন্তু আপনারা পাত্রের জল চেঞ্জ করে নিতে পারেন। মোটামুটি ৪৫ থেকে ৫০ দিনের মধ্যেই একেবারে ফলাফল পেয়ে যাবেন।

ধনেপাতা এই পদ্ধতিতে চাষ করার জন্য আপনারা হাইড্রোপনিক ফার্টিলাইজার বা লিকুইড ফার্টিলাইজার ব্যবহার করতে পারেন। এটি যে কোন নার্সারি থেকেই আপনারা সহজে সংগ্রহ করে নিতে পারবেন। এই ফার্টিলাইজার ব্যবহার করলে কিন্তু গাছের বৃদ্ধি দারুন গতিতে হবে।। মোটামুটি 15 দিন অন্তর আপনারা ঝুড়ির নিচে থাকা পাত্রের জল পরিবর্তন করে দেবেন এবং সেই জলের মধ্যে পরিমাণ মতন ফার্টিলাইজার মিশিয়ে দেবেন।

এটা যেহেতু মিনারেল বেসড ফার্টিলাইজার তাই খুব সহজেই জলের সঙ্গে মিশে যাবে। চাইলে আপনারা কিন্তু মাটিতেও এইভাবে ধনেপাতা চাষ করতে পারেন তবে সে ক্ষেত্রে অনেক আগাছা জন্মে যায় যা সময়মতো পরিষ্কার না করলে কিন্তু গাছের বৃদ্ধি ব্যাহত হয়।। তবে এই হাইড্রোপনিক পদ্ধতিতে যদি আপনারা ধনেপাতা চাষ করে থাকেন তাহলে কিন্তু আপনাদের এই ধরনের কোন সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে না।

Back to top button