খুব অল্প ওজনের মধ্যে সোনার চোখার ও নেকলেসের দাম সহ ২০টি দুর্দান্ত ডিজাইনের কালেকশন দেখে নিন

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোনা এমন একটি জিনিস যা ভারতীয় বাজারে কিন্তু বিভিন্ন সময়ে কম-বেশি মানুষ খরিদ করে থাকেন। যদিও পূর্ববর্তী সময়ে সোনার চাহিদা কিন্তু প্রত্যেকটি বিয়ে বাড়ি এবং অনুষ্ঠানেই মহিলাদের মধ্যে দেখা যেত। কিন্তু বর্তমানে তা একেবারেই কমে গিয়েছে বলা যায়। মূল্য বৃদ্ধির কারণে আজকাল কিন্তু অনেকেই সোনার বিকল্প ধাতু হিসেবে সিটি গোল্ড বা অন্যান্য ব্যবহার করছেন।

আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সাথে শেয়ার করে নিতে চলেছি পুজো স্পেশাল কালেকশন হিসেবে বিশেষ কিছু সোনার নেকলেস আর চোকারের ডিজাইন সম্পর্কে। আসুন আর দেরি না করে এই ডিজাইনগুলো দেখে নেওয়া যাক।

বিভিন্ন ডিজাইনের সোনার নেকলেস আর চোকার:

১) আজকের এই প্রতিবেদনের শুরুতেই আমরা একটি সোনার জড়োয়া নেকলেস নিয়ে আপনাদের সঙ্গে আলোচনা করতে চলেছি। নেকলেস টি র উপরের আর নিচের অংশে খুব সুন্দর ছোট ছোট ফুল আর জ্যামিতিক নকশার মতন করা রয়েছে। মধ্যবর্তী স্থানে ফ্লাওয়ারশেপে খুব সুন্দর ডিজাইন করা রয়েছে। সম্পূর্ণ গলা জুড়ে এই নেকলেসটি থাকবে। এটিকে আপনারা খুব সহজেই ব্রাইডাল কালেকশন হিসেবেও কিন্তু ধরতে পারেন। সোনার তৈরি এই অসাধারণ নেকলেস এর দাম পড়বে প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা।

২) দ্বিতীয় যে ডিজাইনটি দেখতে চলেছেন সেটাও কিন্তু একটা ব্রাইডাল কালেকশন। নেকলেস টির চারপাশে খুব সুন্দর কাজ করা রয়েছে এবং মাঝখানে রয়েছে একটি বিশাল আকৃতির ফুলের কাজ।। মোটামুটি এই নেকলেসটি তৈরি করতে গেলে আপনাদের খরচ পড়বে প্রায় ৬২ হাজার টাকা।

৩) এবারে আমরা আপনাদের সাথে যে ডিজাইনটি শেয়ার করতে চলেছি সেটাকে নেকলেস না বলে অনেকটা চোকারো বলা যায়। ডিজাইনটি দেখে মনে হচ্ছে দুটি ময়ূর দুদিকে মুখ ঘুরিয়ে রয়েছে। অত্যন্ত ইউনিক ধরনের এই ডিজাইনের চোকারটি তৈরি করতে গেলে আপনাদের খরচ পড়বে প্রায় ৪০ হাজার টাকা।।

৪) এবারে আপনারা যে ডিজাইনটি দেখছেন সেটা খুবই সুন্দর একটা ব্রাইডাল কালেকশন। পাশাপাশি রিসেপশন এর গয়না হিসেবেও আপনারা এটাকে ট্রাই করে দেখতে পারেন। খুব সুন্দর দুই ধারে একটা নকশা এবং মাঝখানে গোল মতন ডিজাইন করা রয়েছে এই নেকলেস টিতে। বানাতে গেলে প্রায় ৭০ হাজার টাকার কাছাকাছি খরচ পড়বে।

৫) এবার আপনারা যে নেকলেস টি দেখছেন সেটাও কিন্তু বৌভাত বা রিসেপশন এর জন্য আপনারা কিনতে পারেন। এছাড়াও ছোটখাটো পুজো পার্বণের অনুষ্ঠানের জন্যেও আপনারা এটা পরিধান করতে পারবেন।। এর উপরের অংশ অনেকটা ঝিল্লির মতন কাজ করা এবং নিচের অংশে বিস্কুটের মতন ৩ ধাপে ডিজাইন রয়েছে। কম বয়সী মেয়েদের গলায় কিন্তু এটি দারুন মানাবে। এই ডিজাইনটি তৈরি করতে গেলে আপনাদের প্রায় ৩৩ হাজার টাকা পর্যন্ত খরচ করতে হবে।

৬) এবার আপনারা যে নেকলেস টি দেখছেন সেটা ব্রাইডাল কালেকশনের মধ্যে অন্যতম। নেকলেসটির মধ্যে এত সুন্দরভাবে জালের মতন কাজ করা হয়েছে যা আপনাকে বলে বোঝানো সম্ভব নয়। ছবিতে আপনারা দেখতেই পাচ্ছেন নেকলেসটি কতটা সুন্দর আর ইউনিক। এটি তৈরি করতে গেলে মোটামুটি আপনাদের খরচ পড়বে ৮৩ হাজার টাকা।

৭) এবার আপনারা যে নেকলেসের ডিজাইন টি দেখছেন সেটা খুবই গ্লসি একটা ডিজাইন। নেকলেসটির দুই ধারে হার্ট শেপে কাজ করা রয়েছে। এবং মাঝখানে খুব সুন্দর ভাবে লম্বাটে ধরনের ঝুল আর পুতির মতন করে কাজ করা আছে। যেকোনো পুজো পার্বণ থেকে ছোটখাটো পার্টির জন্য সহজেই আপনারা এই নেকলেসটি পরিধান করতে পারবেন। কম বয়সী মেয়েদের গলায় কিন্তু এটা দারুন মানাবে। এটি তৈরি করতে খরচ পড়বে প্রায় ২১৫০০ টাকার মতো।

৮) যারা একটু হালকা জুয়েলারি করতে পছন্দ করেন তারা অবশ্যই বিয়ের দিন আমাদের নেকলেসের এই ডিজাইনটি ট্রাই করে দেখতে পারেন। খুব সুন্দর ফুল এবং নকশা করে এই ডিজাইনটি তৈরি করা হয়েছে। ফুলের একেবারে মাঝ বরাবর একটি ব্যাকানো নকশা করা রয়েছে। এই ডিজাইনটি তৈরি করতে আপনাদের প্রায় খরচ পড়বে ৩৬ হাজার টাকা।

৯) যারা ভারী গয়না করতে পছন্দ করেন এবং বিয়ের জন্য মোটামুটি জড়োয়া নেকলেসের কালেকশন খুঁজছেন তারা অবশ্যই আমাদের তালিকায় থাকা এই নবম ডিজাইন টি দেখতে পারেন। সম্পূর্ণ নেকলেসটির মধ্যে এক ধরনের জালের মতন কাজ এবং মাঝখানে ফ্লাওয়ার শেপে আর কল্কার মতন নকশা করা রয়েছে।। এই ডিজাইনটি তৈরি করতে গেলে আপনাদের কিন্তু প্রায় ৯১৫০০ টাকার কাছাকাছি খরচ হবে।

১০) এবার আপনারা নেকলেসের যে ডিজাইনটি দেখতে পাচ্ছেন সেটাতে মাঝখানে একটি খুব সুন্দর ফুল তৈরি করা হয়েছে এবং দু’ ধরে রয়েছে একটা সুন্দর হালকা ডিজাইন। খুব একটা ইউনিক না হলেও এই নেকলেসের ডিজাইন কিন্তু বেশ দেখতে ভালোই লাগছে। এটা তৈরি করতে আপনাদের প্রায় খরচ পড়বে ৩৮ হাজার টাকা।

১১) এবারে যে নেকলেসটি আপনারা দেখছেন সেটাও একটা জড়োয়া নেকলেসের কালেকশনের মধ্যে রয়েছে। মাঝের অংশে গোল মতন একটা ডিজাইন করা এবং নিচের দিকে রয়েছে অনেকটা জ্যামিতিক নকশার মতন ডিজাইন। এই ডিজাইনটি তৈরি করতে গেলে প্রায় ৭১ হাজার টাকা কাছাকাছি খরচ হবে।

১২) এবারে আপনারা যে কালেকশনটি দেখছেন সেটাতে খুব সুন্দর তিনটে ফুল করা রয়েছে কন্ঠ বরাবর। দুই ধারে রয়েছে খুব সুন্দর একটা লম্বাটে ধরনের নকশা। নিচের দিকে বেশ সুন্দর একটা জালের মতন কাজ করা রয়েছে এবং ঝুলের মতন বেরিয়ে রয়েছে। বিয়ের দিন না হলেও যে কোন উৎসব অনুষ্ঠানে বা পুজো পার্বণে আপনারা এটা পড়তে পারবেন। দাম পড়বে প্রায় ২৭৪০০ টাকা।

১৩) মোটামুটি বিয়ের দিন দধিমঙ্গল থেকে শুরু করে আইবুড়ো ভাতের জন্য যদি আপনি আলাদা গয়না কিনতে চান তাহলে অবশ্যই এই ডিজাইনটি ট্রাই করে দেখতে পারেন। খুবই সিম্পল একটা নকশা করা রয়েছে এর মধ্যে। তবে নেকলেসটির মাঝখানে যেন নকশাটি করা হয়েছে সেটা অনেকটা ময়ূরের ডিজাইনের। এই নেকলেসটির দাম পড়ছে প্রায় ৪৭ হাজার ২০০ টাকা।

১৪) এবারে আপনারা যে ডিজাইনটি দেখছেন সেটা চোকার। দুই ধারে অনেকটা পাতের মতন করে ডিজাইন এবং মাঝখান বরাবর একটা গোল ফুলের মতন ডিজাইন এখানে করা হয়েছে। মাঝ বরাবর খুব সুন্দরভাবে ঝিলের কাজ করা আছে। এটি তৈরি করতে গেলে কিন্তু আপনাদের প্রায় খরচ পড়বে ৩৩ হাজার টাকা।

১৫) এবারে আপনারা যে ডিজাইনটি দেখছেন সেটাও খুব সুন্দর একটা জ্যামিতিক নকশা দিয়ে তৈরি ডিজাইন। ব্রাইডাল কালেকশন হিসেবে ও আপনারা বানাতে পারেন। ৪২০০০ টাকার কাছাকাছি এটি বানাতে খরচ পড়বে।

১৬) এবারে আপনারা যে ডিজাইনটি দেখছেন সেটার দু’ধারে অনেকটা পান পাতার মতন নকশা করা রয়েছে এবং চেনের ঠিক মাছ বরাবর দুটো ফুল করা রয়েছে। বিয়ে বাড়ি বা পার্টির জন্য আপনারা অবশ্যই এই ডিজাইন ট্রাই করতে পারেন। ২৭ হাজার টাকার কাছাকাছি খরচ পড়বে।

১৭) এবারে আপনারা যে ডিজাইনটি দেখছেন সেটার দুই ধারে ছোট বলের মতন কাজ করা রয়েছে। মাঝখানে পরপর তিনটি রিং এর মতন রয়েছে যেখান থেকে অনেকটা আলাদা ধরনের একটা চেইন ডিজাইন বেরিয়ে আসছে। নেকলেসটির দাম পড়বে প্রায় ২৬ হাজার ৫০০ টাকা।

১৮) এবার আপনারা নেকলেসের যে ডিজাইনটি দেখছেন সেটাতেও মাছ বরাবর খুব সুন্দর দুটি ফুলের ডিজাইন করা রয়েছে। উপরের ফুলটিতে চারটি এবং নিচের ফুলটিতে তিনটি পেটাল করা আছে। হালকা ওজনের অসাধারণ ডিজাইন করা এই নেকলেসটি বানাতে আপনাদের খরচ পড়বে প্রায় ২৫ হাজার টাকা।

১৯) এবারে যে চোকার আপনারা দেখছেন সেটার মধ্যে খুব সুন্দর ভাবে মাঝখানে ফুল এবং দুই ধারে ওভার সেপে কাজ করা রয়েছে। ডিজাইনটি কিন্তু খুবই সুন্দর এবং এটা তৈরি করতে খরচ পড়ছে প্রায় ২৭ হাজার ৫০০ টাকা।

২০) আজকের এই প্রতিবেদনের সব শেষে আমরা যে ডিজাইনটি আপনাদের দেখাবো সেটাও একটা চোকারের ডিজাইন। খুব সুন্দর ভাবে এই নেকলেসটির ঠিক উপরের দিকে একটা ফুলের মতন এবং নিচের অংশে ছোট পাপড়ির মতন কাজ করা রয়েছে। দেখে মনে হচ্ছে মাঝখানে একটা পদ্ম ফুল বসানো। দুই ধারে রয়েছে কল্কার মতন নকশা। ব্রাইডাল কালেকশন বা পূজো পার্বণের জন্য অবশ্যই এই ডিজাইন ট্রাই করা যেতে পারে। তৈরি করতে খরচ পড়বে প্রায় ২৫৮০০ টাকা।

আজকে আমাদের শেয়ার করা ডিজাইন গুলির মধ্যে আপনাদের সব থেকে কোন ডিজাইনটি বেশি ভালো লাগলো তা স্ক্রিনশট করে কমেন্ট বক্সে জানাতে ভুলবেন না। তবে সবশেষে আপনাদের সুরক্ষার জন্য বলব অবশ্যই কিন্তু সোনার গয়না কেনার আগে আপনারা হলমার্ক যাচাই করে নেবেন। এই ধরনের আরো প্রতিবেদন সম্পর্কে আপডেট পেতে হলে আমাদের অন্যান্য লেখাগুলির উপরে নজর রাখতে থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button