একদম হালকা ওজনের মধ্যে আধুনিক ডিজাইনের সোনার শাঁখা পলা বাঁধানোর ১৪টি দুর্দান্ত কালেকশন দেখে নিন

নিজস্ব প্রতিবেদন: বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে নারী-পুরুষ নির্বিশেষে সকলেই কিন্তু সোনার গয়না পরিধান করতে অত্যন্ত পছন্দ করে থাকেন। তবে যেভাবে দিন প্রতিদিন হলুদ ধাতুর মূল্য বৃদ্ধি হয়ে চলেছে তাতে সাধারণ মানুষের পক্ষে কিন্তু যখন তখন সোনা খরিদ করা একেবারেই সম্ভব নয় বলা যায়।। তবে সামনে রয়েছে ধনতেরাস থেকে শুরু করে দীপাবলীর মতন উৎসব। তারপরেই শুরু হয়ে যাবে বিয়ের সিজন। এমতাবস্থায় অনেকেই কিন্তু কম-বেশি হয়তো সোনার গয়না কেনার কথা ভাবছেন বা ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন।

বিয়ের সিজনের সবথেকে বেশি চাহিদা সম্পন্ন গয়না গুলির মধ্যে রয়েছে সোনার শাখা বা পলা বাঁধানো। অন্যান্য জুয়েলারি না বানিয়ে থাকলেও এই শাখা বা পলা বাঁধানো কিন্তু সনাতন ধর্মাবলম্বী বিবাহিত মহিলাদের জন্য একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ গহনা। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা তাই দারুণ কিছু শাখা আর পলার বাঁধানোর লেটেস্ট ডিজাইন দেখে নেব। 

সোনার শাঁখা—পলা বাঁধানোর লেটেস্ট কিছু কালেকশন:

১) আজকের এই প্রতিবেদনের শুরুতেই আপনারা যে ডিজাইনটি দেখতে চলেছেন সেটি ময়ূর শাখা। মুখের কাছে ময়ূরের ডিজাইন এর পাশাপাশি এটার উপরে অলওভার সোনার কাজ করা রয়েছে। খুব সুন্দর মিনাকারি ডিজাইন রয়েছে সোনার কাজের উপরে। কালেকশনটা আপনারা মোটামুটি ২ লক্ষ টাকার মধ্যে পেয়ে যাবেন।

২) এবার যে কালেকশনটি আপনি দেখছেন সেটার মুখের কাছে খুব সুন্দর ফ্লাওয়ার ডিজাইনে কাজ করা রয়েছে এবং বাকি শাখার অংশটিতেও অল ওভার কাজ করা রয়েছে দারুণভাবে। ব্রাইডাল কালেকশন থেকে শুরু করে সাধারণ পুজোর্বন উপলক্ষেও আপনারা এই শাখা পরিধান করতে পারবেন। ২ লক্ষ ৪০ হাজার টাকার মধ্যে আপনারা এই কালেকশনটা তৈরি করতে পারবেন।

৩) এবার যে কালেকশনটি দেখছেন সেটাতে পুরো শাখার উপরেই কাজ করা রয়েছে। এত সুন্দর কালেকশন আপনারা আর কোথাও দেখেছেন বলে মনে হয় না। দেখে শাখা নয়, এটা তো একটা বালা মনে হবে। জোড়া শাখা আপনারা পেয়ে যাবেন ১ লক্ষ ৪৮ হাজার টাকার মধ্যে। আপনারা কিন্তু সিঙ্গেল পিস ও পরিধান করতে পারেন।

৪) এবার যে শাঁখা বাধানোর কলেকশন আপনারা দেখছেন সেটা হল একটি মাছ ময়ূর শাখা। শাঁখার উপর খুব সুন্দর করে মাছ আর ময়ূরের ডিজাইনের কাজ করা রয়েছে। শুধুমাত্র সোনা নয় তার উপরে রয়েছে মিনাকারি কাজ। এই শাঁখা জোড়া আপনারা পেয়ে যাবেন ৬২ হাজার টাকায়।

৫) এবার যে শাখাটি দেখাতে চলেছি সেটি কিন্তু সিঙ্গেল পিস অর্থাৎ ব্রেসলেট শাখা। উপরে মুখের কাছে দারুন একটা নকশা এবং শাখাটির মাঝবরাবর খুব সুন্দর সোনার পাতের কাজ করা রয়েছে। দাম পড়বে ৬৭ হাজার টাকা।

৬) এবার যে শাখাটি আপনারা দেখছেন সেটার উপরে খুব সুন্দর মুখের কাছে কাজ করা রয়েছে। এটাও কিন্তু একটা ব্রেসলেট শাখা যার দাম পড়বে মোটামুটি ৫৭ হাজার টাকা।

৭) এবার যে শাখাটি আপনারা দেখছেন সেটার উপরে পাতের কাজ করা আছে। এর সিঙ্গেল পিস এর দাম পড়বে ৩০ হাজার টাকা এবং জোড়া দাম পড়বে ৬০ হাজার টাকা।

৮) এবার যে শাখা বাধানোর কালেকশনটি আপনারা দেখছেন সেটার উপরে অল ওভার সোনার পাত এবং পাতের উপরে খুব সুন্দর ময়ূরের পেখমের মতন কাজ করা রয়েছে। রেগুলার ইউজ থেকে শুরু করে ছোটখাটো অনুষ্ঠানেও আপনারা এটা পরিধান করতে পারবেন। এর সিঙ্গেল পিস এর দাম পড়বে ৩৮ হাজার টাকা।

) এবার যে শাঁখা বাধানোর কালেকশনটি আপনারা দেখছেন সেটা খুব লাইট ওয়েট এর মধ্যে পাতের কাজ করা রয়েছে। এর সিঙ্গেল পিস এর দাম পড়বে ১৭ হাজার টাকা।

১০) আবার একটি মাছ ময়ূর শাখার কালেকশন আপনাদের দেখাতে চলেছি যেটা পুজো পার্বণ থেকে শুরু করে বিয়ে বাড়ি সবকিছুর জন্যই একেবারে পারফেক্ট। এই শাঁখা জোড়ার দাম পড়বে মোটামুটি ৭৪ হাজার টাকা।

১১) শাঁখার মতন এবার হুবহু একটি অলওভার কাজ করা পলা আপনাদের দেখাতে চলেছি যা ছোটখাটো অনুষ্ঠান থেকে বিয়ে বাড়ির সব কিছুর জন্যই আদর্শ। এই পলা বাঁধানোর সিঙ্গেল পিস এর দাম হবে ৬৩ হাজার টাকা।

১২) এবার যে পলা বাঁধানো আপনারা দেখতে চলেছেন সেটা মাছপলা নামেই বেশি পরিচিত। এই পলাটির উপরে খুব সুন্দর ভাবে সোনার পাতের সাহায্যে কিছুটা বরফি আর কিছুটা মাছের ডিজাইন করা রয়েছে। এই কালেকশনটির দাম পড়বে মোটামুটি ৪২ হাজার টাকা।

১৩) শাখার মতন কিন্তু ব্রেসলেট পলাও আপনারা কিনে নিতে পারেন। এই পড়াটির মধ্যে সোনার পাত এবং মিনাকারি কাজের সাহায্যে মুখের কাছে দারুন আমের পল্লবের ডিজাইন করা রয়েছে। এই পলা বাঁধানোর সিঙ্গেল পিস এর দাম ৫৪ হাজার টাকা।

১৪) আজকের এই প্রতিবেদনে সব শেষে যে পলা বাঁধানো ডিজাইন আপনাদের দেখাতে চলেছি সেটাও একটা ব্রেসলেট পলা। এটার মুখের কাছে খুব সুন্দর চৌকো মতন একটা ডিজাইন করা রয়েছে যা এটা কি আরো আকর্ষণীয় করে তুলেছে।। এই কালেকশনটি তৈরি করতে গেলে আপনাদের মোটামুটি খরচ করতে হবে ৪৭ হাজার টাকা।

Back to top button