কোলে ২২ দিনের সদ্যোজাত শিশু, তাকে কোলে নিয়েই কাজে যোগ দিলেন IAS অফিসার ‘মা’ ভাইরাল ভিডিও!

কোলে ২২ দিনের সদ্যোজাত শিশু, তাকে কোলে নিয়েই কাজে যোগ দিলেন  IAS অফিসার ‘মা’ ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-কথাতে আছে যে নারীরা দশোভূজা । বলাবাহুল্য মায়েরা দশোভূজা । বাড়ির ভিতর হোক বা বাইরে সব দিকে খেয়াল রাখে মায়েরা। নিমিষের মধ্যে করে ফেলে একের পর এক কাজ কোন রকম অ-ভি-যো-গ ছাড়াই । তারপরও যদি কোন কাজের সাথে তিনি যুক্ত থাকেন তাহলে তার কোন কথাই নেই। বাড়ির ভেতরে এবং বাড়ির বাইরে কাজ একসাথে সামলানো রীতিমতো দুঃসাধ্য ব্যাপার হয়ে ওঠে কিন্তু ওই যে বললাম যে মায়েরা দশোভূজা। সব কাজ সামলে নেয় এক হাতে।

অফিস কাছারি তে বা অন্য কোথাও মেয়েদের সচরাচর নেয়া হয় না তার কারণ একটাই যখন তিনি অন্তঃসত্ত্বা থাকবেন তখন নিতে হবে দীর্ঘ দিনের ছুটি। এর জন্য তার পাশাপাশি তার পিছনে দু’চারটে কথা বলতে পিছপা হয়না বাকিরা। কিন্তু এ ঘটনা যেন বাকি সব ঘটনা কে ছাপিয়ে গেছে । করে দিয়েছে ভুল প্রমাণ।

সম্প্রতিক গাজিয়াবাদে এসডিএম সোমা পান্ডে যা করলেন তা রীতিমত অবাক করার মতন কান্ড । অবশ্য তার এই কাণ্ড বন্ধ থাকে নি চার দেওয়ালে । ছড়িয়ে পড়েছে পৃথিবীর আনাচে-কানাচে মুহূর্তের মধ্যে । যাকে বলে ভাইরাল হয়েছে। মাত্র ২২ দিন হয়েছে তিনি একটি সন্তানের জন্ম দিয়েছেন এবং সেই অবস্থাতেই তিনি যোগ দিয়েছেন তার কাজে। নিজের কাজকর্ম এবং মাতৃত্ব দুটোর প্রতি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ তিনি। তাই চালিয়ে যাচ্ছেন দুটোর কাজ একসাথে এক হাতে ।

করোনা কালে জন্ম দিয়েছেন তিনি । তাই বাকি অন্যান্য সময়ের তুলনায় তাকে সাবধান থাকতে হবে একটু বেশি। অফিসের যা সব ফাইলপত্র সেগুলি তিনি বারবার সনিটাইজ করছেন । যাতে এর প্রভাব সদ্যজাত এর উপর কোনদিন না আসে ।

সৌম্যা বলেছেন, গর্ভবস্থাকালে তিনি সকলের থেকে অনেকরকম সুবিধা পেয়েছেন৷ তাই নিজের শারীরিক অবস্থা ঠিক হতেই তিনি কাজের দুনিয়ায় ফিরে তিনি খুবই স্বচ্ছন্দ৷ গাজিয়াবাদ প্রশাসন তাঁকে সবরকম ভাবে সাহায্য করেছে তাই এই কঠিন সময়ে কাজ থেকে দূরে সরে থাকতে পারছেন তিনি৷ আর এই দায়িত্বশীল মা ও আধিকারিককে কুর্নিশ করছেন নেটিজেনরা৷

,

Leave a Reply

Your email address will not be published.